• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

চিনার পার্ক যেন ‘ভেনিস’

water
জলোচ্ছ্বাস: বৃষ্টির জমা জলে ঢেউ উঠেছে চিনার পার্কে। সোমবার। ছবি: সুমন বল্লভ

এক ঘণ্টার বৃষ্টিতেই জলে ডুবে যায় হলদিরাম বাসস্টপ এবং চিনার পার্ক সংলগ্ন এলাকা। তাই ওই সব জায়গা ভিআইপি রোডের ভেনিস নামে পরিচিত। রবিবারের সন্ধ্যায় ঘণ্টাখানেকের ভারী বৃষ্টিতে আবারও ভাসল ওই সব এলাকা। জমা জল সোমবার সকাল ১০টাতেও নামল না। ভিআইপি রোডের সার্ভিস রোডগুলি তখন যেন নদী। জলমগ্ন হল বিধাননগর পুরসভার রাজারহাট-গোপালপুরের কেষ্টপুর, বাগুইআটি, চিনার পার্ক, কৈখালি, সলুয়া, জর্দাবাগানের রবীন্দ্রপল্লির খাল সংলগ্ন বিস্তীর্ণ এলাকা। জল জমল সল্টলেক এবং সংযুক্ত এলাকার কিছু অংশেও। 

হলদিরাম এলাকার সার্ভিস রোডে জমা জলে এ দিন কয়েকটি গাড়িও খারাপ হয়ে যায়। অভিযোগ, ভিআইপি রোডের এ পার-ও পার করতেই রিকশা ভাড়া নেওয়া হয়েছে ৫০ থেকে ৭০ টাকা। জমা জলে গাড়ি খারাপ হওয়ার আশঙ্কায় অনেকে অফিস যেতে পারেননি বলে বাসিন্দারা জানান। রাস্তায় হাঁটুজলে দাঁড়িয়ে বাসের অপেক্ষা করতে দেখা যায় লোকজনকে। বাসিন্দাদের একাংশের অভিযোগ, বিধাননগরে পুরসভা (কর্পোরেশন) তৈরি হয়েছে। কিন্তু সমস্যা মেটেনি। 

রবিবার সন্ধ্যার বৃষ্টিতে বাগুইআটির জর্দাবাগান সংলগ্ন বিবি-১ খাল (বাগজোলা বাইপাস ওয়ান খাল) এলাকায় রাস্তায় জমা জল বাড়িতেও ঢুকে পড়ে। অভিযোগ, নেতা-মন্ত্রীরা খাল সংস্কারের আশ্বাস দিলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এলাকার রাস্তা উঁচু করার কাজও অর্ধেক হয়ে পড়ে আছে বলে অভিযোগ। স্থানীয় বাসিন্দাদের আশঙ্কা, এ বার বর্ষায় দুর্ভোগ কয়েক গুণ বাড়বে। 

পুর কর্তাদের দাবি, জল বার করার কাজ করা হচ্ছে। নিকাশি নালা ও খাল কোথাও আটকে আছে কি না, তা দেখা হচ্ছে। মেয়র পারিষদ দেবাশিস জানা জানান, বিমানবন্দর, হিডকোর সঙ্গে পুরো বিষয়টি পর্যালোচনা করা হবে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন