আজ সভা প্রধানমন্ত্রীর, প্রস্তুতি তুঙ্গে
বিজেপি সূত্রে খবর, আজ সকাল ১০ টায় মোদীর সভা শুরু হবে। মোদীর এই সভার জন্য বুনিয়াদপুরের নারায়ণপুরে ৪২ একর জমি নিরাপত্তায় ঘিরে ফেলা হয়েছে। 
BJP

প্রস্তুতি: মোদীর মাঠ দেখছেন বিজেপির নেতারা। নিজস্ব চিত্র

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুক্রবার জনসভা করলেন বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের দু’টি শহরে। আজ, শনিবার সেই জেলাতেই আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি সভা করবেন বুনিয়াদপুরে। বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সুকান্ত মজুমদারের সমর্থনে সেই জনসভায় মালদহ উত্তর ও দক্ষিণের বিজেপি প্রার্থীরাও থাকবেন বলে জানিয়েছে বিজেপি সূত্র। দলীয় সূত্রে খবর, দুই জেলার প্রায় তিন লক্ষ কর্মী-সমর্থককেও মাঠে উপস্থিত করতে প্রস্তুতি নিয়েছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অরবিন্দ মেনন জেলায় পৌঁছে গিয়েছেন। তাঁরাই সভাস্থলের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখেছেন।

বিজেপি সূত্রে খবর, আজ সকাল ১০ টায় মোদীর সভা শুরু হবে। মোদীর এই সভার জন্য বুনিয়াদপুরের নারায়ণপুরে ৪২ একর জমি নিরাপত্তায় ঘিরে ফেলা হয়েছে। 

শুক্রবারও মোদীর হেলিকপ্টার অবতরণের জন্য ট্রায়াল হয়। হেলিকপ্টার অবতরণের জন্য মোট তিনটি হেলিপ্যাড তৈরি করা হয়েছে। ভিড় সামলাতে বিজেপির যুবমোর্চার আড়াই হাজার সদস্যকে স্বেচ্ছাসেবকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। থাকছেন ৫০০ জন মহিলা স্বেচ্ছাসেবক। সভাস্থলের নিরাপত্তা খতিয়ে দেখতে উচ্চ পর্যায়ের আধিকারিক এবং এসপিজি পরিদর্শন করেছেন। 

এই প্রথম দক্ষিণ দিনাজপুরের মতো পিছিয়ে থাকা সীমান্তবর্তী জেলায় প্রধানমন্ত্রী সভা করতে আসছেন। কাজেই জেলাবাসীর মধ্যে আলাদা উন্মাদনা তৈরি হয়েছে। জেলার জন্য আলাদা করে মোদী কী কী প্রতিশ্রুতি দেন তা নিয়ে চলছে আলোচনা। বুনিয়াদপুরের ওয়াগন কারখানা নিয়ে কী বলেন, রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা নিয়েই বা মোদী কী প্রতিশ্রুতি দেন, তা নিয়ে জল্পনা চলছে বাসিন্দাদের মধ্যে। কৈলাস বলেন, ‘‘জেলার অনেক দাবিই মোদীর কাছে জানানো হবে। নিশ্চয় তিনি সেইসব নিয়ে বলবেন।’’ 

মোদীর এই সভার পাল্টা সভা করতে আগামী রবিবার ভোট প্রচারের শেষ দিনে বুনিয়াদপুরে সভা করবেন তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দু ও টলিউড অভিনেতা দেব বুনিয়াদপুরে রোড শো-ও করবেন। প্রচারের একেবারে শেষ লগ্নে এসে মোদী যাতে একচেটিয়া ভাবে ফায়দা তুলতে না পারেন, সেই উদ্দেশে প্রচারের শেষ দিনে দেব ও শুভেন্দুকে দিয়ে রোড-শো করিয়ে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক ধরে রাখার কৌশল নিয়েছে তৃণমূল, এমনটাই দাবি রাজনৈতিক মহলের।

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত