Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

কট্টরবাদীরা শক্তি বাড়াচ্ছে ঠিকই, তা বলে নীরব হয়ে যাওয়া চলে না

অঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়
০৪ মে ২০১৭ ০৪:৪৪
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

পরিস্থিতিটা ক্রমশ উদ্বেগজনক হচ্ছে। কট্টরবাদ-অসহিষ্ণুতা-হিংসার বাতাবরণ রোজ সমালোচিত হচ্ছে গোটা দেশে, প্রতিদিন নিন্দার ঝড় উঠছে। কিন্তু নিন্দার ঝড় যত তীব্র হচ্ছে, কট্টরবাদও যেন ততই শক্তি বাড়াচ্ছে। সমস্ত ঝড়-ঝাপটা কাটিয়ে গোটা ভারত জুড়ে মাথা তুলে দাঁড়াতে যেন বদ্ধপরিকর সে। কট্টরবাদের এই ভীষণ অবস্থানের সামনে বিরোধী স্বরগুলো ম্রিয়মান হয়ে আসছে ক্রমশ। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও এক বার বেশ স্পষ্ট করেই মুখ খুললেন, জরুরি একটা কথা আবার মনে করিয়ে দিলেন।

ধর্মাচরণ, সংস্কৃতি, জীবনযাপন, খাদ্যাভ্যাস বা পোশাক-আশাক প্রত্যেকের কাছেই নিতান্ত ব্যক্তিগত বিষয়। এই বিষয়গুলি যতক্ষণ না প্রত্যক্ষ ভাবে অন্যকে আঘাত করছে, ততক্ষণ এই সব পরিসরে বহিরাগত হস্তক্ষেপ একেবারেই অযাচিত। অনুচিতও। কিন্তু সেই অযাচিত এবং অনুচিত হস্তক্ষেপটা আজকাল প্রায় রোজ কোথাও না কোথাও ঘটছে এবং সব প্রতিরোধ ঠেলে সে প্রবণতা একটু একটু করে তার প্রাবল্য বাড়াচ্ছে। গোমাংসের পদ রান্নার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে কেন হঠাৎ তুমুল হেনস্থার মুখে পড়তে হবে জনপ্রিয় অভিনেত্রীকে? কেন চাপের মুখে তাঁকে বলতে হবে, গোমাংস নয়, পদটি মোষের মাংস দিয়ে রান্না করা হয়েছিল? একটা রেসিপি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার জেরে কেন এমন পরিস্থিতি তৈরি হবে, যা নিয়ে এক জন মুখ্যমন্ত্রীকে মুখ খুলতে হয়?

কে কী খাবেন, তা তিনি নিজেই স্থির করবেন, অন্য কেউ নয়। এ কথা আরও এক বার মনে করিয়ে দিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কথাটা প্রথম বার উচ্চারিত হল, তেমন নয়। কথাটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথম বার বললেন, এমনও নয়। কিন্তু যত বার বলার দরকার পড়বে, যত দিন ধরে মনে করিয়ে দেওয়ার প্রয়োজন অনুভূত হবে, তত দিন ধরেই বার বার ঘুরে-ফিরে আসবে এই উচ্চারণ— মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই বার্তাটুকু দিয়ে দিলেন। অসহিষ্ণুতা আর কট্টরবাদে ভারাক্রান্ত এক সময়ে সব বিরোধিতা যখন নিভে আসছে ক্রমশ, তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই কাঠিন্য নিঃসন্দেহে উজ্জ্বল।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement