Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
Centralized online Admission 2024

স্নাতক স্তরে ভর্তি হতে চান? অভিন্ন পোর্টাল থেকে কী ভাবে আবেদন করবেন?

শিক্ষা দফতরের তরফে রাজ্যের ১৬টি বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৬১টি সরকারি এবং সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত কলেজ এবং উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্নাতক স্তরে ভর্তি হওয়ার জন্য ‘সেন্ট্রালাইজ়ড অ্যাডমিশন পোর্টাল’ চালু করা হয়েছে।

Instructions for West Bengal 12th pass students to register.

প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ জুন ২০২৪ ১৬:৩৫
Share: Save:

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর হাত ধরে চালু হয়েছে ‘সেন্ট্রালাইজ়ড অ্যাডমিশন পোর্টাল’। ওই পোর্টালের মাধ্যমে ১৬টি বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৬১টি সরকারি এবং সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত কলেজ এবং উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্নাতক স্তরে ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। কী ভাবে কারা আবেদন করতে পারবেন, সেই সমস্ত বিষয়ে সবিস্তার তথ্য পেশ করা হল।

কারা আবেদন করতে পারবেন?

দেশের যে কোন স্বীকৃত বোর্ড / কাউন্সিল / সমতুল্য প্রতিষ্ঠান থেকে দ্বাদশ উত্তীর্ণ পড়ুয়ারা আবেদন করতে পারবেন। তাঁরা মোট ৭ হাজার ২১৭টি কোর্সের মধ্যে থেকে নিজের পছন্দের বিষয় বেছে নিতে পারবেন।

আবেদনের শর্তাবলি:

  • এই ভর্তি প্রক্রিয়ার সাহায্যে সর্বোচ্চ ২৫টি স্নাতক স্তরের কোর্সে আবেদন জানাতে পারবেন।
  • কোর্স ফি অনলাইনে জমা দিতে হবে।
  • আলাদা করে আবেদনমূল্য জমা দিতে হবে না।
  • আবেদনের নিরিখে পড়ুয়াকে তাঁর পছন্দের বিষয়ে ভর্তির জন্য একটি মাত্র আসনই বরাদ্দ করা হবে।
  • বিষয় ‘আপগ্রেড’ করার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ফি পোর্টালের মাধ্যমে জমা দিতে হবে।
  • এ ক্ষেত্রে পূর্বে ভর্তি হয়ে যাওয়া বিষয়ের ফি যদি আপগ্রেডেড কোর্সের ভর্তি মূল্যের থেকে কম হয়, তা হলে তা নথিভুক্ত ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্টে সরাসরি পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

কী ভাবে নাম নথিভুক্ত করবেন?

  • আবেদনের জন্য সরাসরি https://wbcap.in/ লিঙ্কে ক্লিক করে প্রবেশ করতে হবে।
  • ওয়েবসাইটের হোমপেজের উপরে থাকা ‘রেজিস্টার নাও’ অপশনটি বেছে নিতে হবে।
  • পড়ুয়াদের বৈধ ফোন নম্বর এবং ইমেল আইডির তথ্য জমা দিয়ে একটি ফর্ম পূরণ করতে হবে।
  • ফর্মটিতে নাম, ঠিকানা, ফোন নম্বর, ইমেল আইডির পাশাপাশি অন্যান্য তথ্য এবং নথি আপলোড করতে হবে।
  • সমস্ত তথ্য জমা দেওয়ার পর নাম নথিভুক্তকরণ সম্পূর্ণ হবে।
  • নাম নথিভুক্ত করার পর প্রোফাইল তৈরি করে নিতে হবে উল্লিখিত পদ্ধতিতেই।

কী ভাবে আবেদন করবেন?

  • প্রোফাইল তৈরি করার পর জেলা, প্রোগ্রাম, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিরিখে পছন্দের বিষয়টি বেছে নিয়ে তা প্রোফাইলে যোগ করতে হবে।
  • এর পর সেই বিষয়ে ভর্তি হওয়ার যোগ্যতার শর্তাবলি দেখে নিতে হবে।
  • ভর্তি হওয়ার ক্ষেত্রে প্রোফাইলে দেওয়া তথ্য যোগ্যতার শর্তাবলির সঙ্গে মিলে গেলে ‘অ্যাড টু প্রেফারেন্স লিস্ট’ অপশনটি বেছে নিতে হবে।
  • এর পরই আবেদনের বিকল্পটিতে ক্লিক করে প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে হবে।

আবেদন করার জন্য প্রয়োজনীয় নথির তালিকা:

  • দশম শ্রেণির মার্কশিট
  • দ্বাদশ শ্রেণির মার্কশিট
  • বৈধ পরিচয়পত্র (উদাহরণ: আধার, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট ইত্যাদি)
  • বাংলার শিক্ষা আইডি, যদি থাকে
  • বয়সের প্রমাণপত্র (দশম শ্রেণির অ্যাডমিট কার্ড/ দশম শ্রেণির রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট)
  • পড়ুয়ার ছবি
  • পড়ুয়ার স্বাক্ষর
  • পড়ুয়া কিংবা তাঁর অভিভাবকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের চেক/ পাস বইয়ের প্রথম পাতা

গুরুত্বপূর্ণ তারিখ:

  • আবেদন গ্রহণ করা হবে ২৪ জুন থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত।
  • প্রথম দফার মেধাতালিকা ১২ জুলাই প্রকাশ করা হবে।
  • ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে ১৮ জুলাইয়ের মধ্যে।
  • ক্লাস শুরু হবে ৭ অগস্ট থেকে ।
  • দ্বিতীয় দফায় মপ আপ রাউন্ডে মেধা তালিকা প্রকাশ হবে ৮ অগস্ট।

উল্লিখিত বিষয়ে আরও তথ্য জেনে নিতে হলে ‘সেন্ট্রালাইজ়ড অ্যাডমিশন পোর্টাল’-এর ওয়েবসাইটটি দেখে নিতে পারেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE