খেলার মাঠ দখলকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের মধ্যে বোমাবাজির ঘটনা ঘটল মুর্শিদাবাদের বড়ঞায়। ভাঙচুর চালানো হয়েছে পুলিশের গাড়িতেও। শুক্রবার সকালে দু’পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে মারধর ও বোমাবাজির অভিযোগ দায়ের করেছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, বেলগ্রাম এবং বাহাদুরপুর, পাশাপাশি এই দুই গ্রামের মধ্যে একটি খেলার মাঠ রয়েছে। সেই মাঠ দখলকে কেন্দ্র করেই দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ঝামেলা বাধে। এ দিন সকালে মাঠটিকে ঘিরে দুই গ্রামের বাসিন্দারা জড়ো হন। শুরু হয় বোমাবাজি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। অভিযোগ, পুলিশকে লক্ষ করেই ইট, বোমা ছোড়া হয়। ভাঙচুর চালানো হয় পুলিশের গাড়িতেও। পরে বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মাঠের দখলদারি নিয়ে দুই গ্রামের মধ্যে চাপা রোষ দীর্ঘ দিনের। তবে তা প্রকাশ্যে আসে বৃহস্পতিবারের একটি ঘটনার পরে। ওই দিন খেলার মাঠটিতে বাহাদুরপুর গ্রামের ছেলেরা খেলছিল। তখন তাদেরকে খেলতে বাধা দেয় বেলগ্রামের লোকেরা। এই ঘটনার কিছু পরে পড়তে যাওয়ার সময়ে বেলগ্রামের বাসিন্দা দুই ছাত্রীকে হেনস্থার অভিযোগ ওঠে বাহাদুরপুর গ্রামের বাসিন্দাদের বিরুদ্ধে। এই ভাবে প্রায় সারা দিন ধরেই একে অপরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগে সরব হয়েছে উভয় পক্ষই। শুক্রবার এই ঘটনাটিই ভয়ঙ্কর রূপ নেয়। সকাল হতেই দুই গ্রামের বাসিন্দারা মাঠে গিয়ে হাজির হয়। শুরু হয় মারধর ও বোমাবাজি। পরপর তিনটি বোমা ছোড়া হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। তাদের উদ্দেশেও ইট ও বোমা ছোড়া হয় বলে অভিযোগ। দু’পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তবে এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি।