• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সুস্থ নুসরত জাহান, প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর ছাড়া হল হাসপাতাল থেকে

nusrat jahan
নুসরত জাহান।

রবিবার, গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন নুসরত জাহান। প্রায় চব্বিশ ঘণ্টা পর তাঁকে ছাড়া হল হাসপাতাল থেকে। সোমবার রাত ৮টার কিছুটা আগে তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এখন তিনি বিপন্মুক্ত।

রবিবার রাত সাড়ে ন’টা নাগাদ বাইপাস লাগোয়া একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় নুসরত জাহানকে। সূত্রের খবর, একসঙ্গে অনেক ওষুধ খেয়ে নেওয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েন বসিরহাটের সাংসদ তথা অভিনেত্রী নুসরত।

সম্ভবত ঘুমের ওষুধ খেয়েছিলেন তিনি। প্রাথমিক ভাবে তাঁকে আইসিইউ-তে রাখা হয়। ফুলবাগান থানায় তাঁর ‘ড্রাগ ওভারডোজ’ নিয়ে রিপোর্টও করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

রবিবার নুসরতের স্বামী নিখিলের জন্মদিন ছিল। সকালে নিখিলের সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবিও পোস্ট করেন নায়িকা। সন্ধেয় পরিবারের তরফ থেকে পার্টির আয়োজন করা হয়। সেই পার্টি চলাকালীন আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন নুসরত।
হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, তাঁরা নুসরতের অসুস্থতার কারণ এবং বর্তমান শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে অবশ্য মুখ খুলতে অস্বীকার করেন। সেই সঙ্গে, ঘুমের ওষুধ খেয়ে অসুস্থতার কথা ‘সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে নুসরতের পরিবারও।

আরও পড়ুন: ‘ভাল আছি আমি! কেউ চিন্তা কোরো না’, হাসপাতাল থেকে বললেন নুসরত
 

সোমবার দুপুরে আনন্দবাজার ডিজিটালকে নুসরতের স্বামী নিখিল বলেন, “সব ঠিক আছে। চিন্তার কিছু নেই। আজই সন্ধের মধ্যে নুসরত বাড়ি ফিরে যাবে। হাঁপানির সমস্যা বাড়ায় মারাত্মক শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এখন ভাল আছে নুসরত।” সেই মতো এ দিনই হাসপাতাল থেকে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। হাসপাতালের একটি সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে নুসরতকে ভর্তি করার পর জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় চিকিত্সার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখন তিনি বিপন্মুক্ত। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল।

পরে আনন্দবাজার ডিজিটালকে নুসরত নিজে বলেন, “আমার শ্বাসকষ্টের সমস্যা অনেক দিনের। সেটা হঠাৎ বেড়ে যাওয়াতেই ভর্তি হতে হয়েছিল। এখন অনেকটা সুস্থ বোধ করছি। বিকেলবেলায় বাড়ি ফিরব।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন