×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

‘মেহেন্দি লগ গয়ি হ্যায় হাতো মে’, খুশিতে উচ্ছ্বল দেবলীনা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৮ ডিসেম্বর ২০২০ ১২:২৯
দেবলীনা কুমার।

দেবলীনা কুমার।

মহানায়ক উত্তম কুমারের বাড়ি উৎসবমুখর। শেষ মুহূর্তের ব্যস্ততা মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমারের বাড়িতেও। ৯ ডিসেম্বর, বুধবার গৌরব চট্টোপাধ্যায়-দেবলীনা কুমারের বিয়ে। মঙ্গলবার সকালেই অভিনেত্রী পোস্ট করেছেন তাঁর মেহেন্দির ছবি। হালকা নীল ডিজাইনার পোশাকে, ফুলের গয়নায়, গাঢ় কাজলে, রানি রঙা ঠোঁটে, বাহারি ছাতায় অপরূপা ‘ফুলকুমারি’। দু’হাত জুড়ে মেহেন্দির নকশা। বিয়ের দিনের জন্য তিনি তুলে রেখেছেন টুকটুকে লাল বেনারসী।

অনেকেই বলেন, মেহেন্দির রং যত গাঢ় ততই গভীর হবু দম্পতির ভালবাসা। গত তিন বছর ধরে সম্পর্কে রয়েছেন তারকা যুগল। তাঁদের প্রত্যেক ছবিতে স্পষ্ট, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রেম বেড়েছে বই কমেনি। সেই ভালবাসাকে আজীবন ধরে রাখতেই বিয়ের বাঁধনে বাঁধা পড়তে চলেছেন তাঁরা। গৌরবের কথায়, ‘‘একটা সময়ের পর মনে হয়েছে, আমরা এক ছাদের নীচে জীবন কাটাতে পারি। সেই ভাবনা থেকেই এই পদক্ষেপ।’’

যদিও অভিনেত্রীর ইচ্ছে ছিল, ধুমধাম করে, সবাইকে আমন্ত্রণ জানিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন। প্রচুর উপহার পাবেন। সেই সমস্ত উপহার লরি করে বাড়ি থেকে পৌঁছে দেওয়া হবে তাঁর শ্বশুরবাড়িতে! সেই ইচ্ছেতে বাদ সেধেছে অতিমারি। তাই নিমন্ত্রণের তালিকায় কাটছাঁট করেই ছোট আকারে চার হাত এক হতে চলেছে।

Advertisement

দেবলীনার বাড়িতে যদিও উৎসব শুরু হয়ে গিয়েছে তাঁর জন্মদিন, ৬ ডিসেম্বর থেকেই। আগের রাত থেকে হবু বৌকে নিয়ে মেতেছিলেন গৌরব। কেক কেটে আগাম উদযাপন ছিলই। জন্মদিনের সকালে তিনিই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রথম শুভেচ্ছা জানান তাঁকে। দু’জনেই জন্মদিন কাটান কাছের মানুষদের নিয়ে।

আরও পড়ুন: ব্যর্থ নবাগতা থেকে কয়েক বছরেই নামী প্রযোজক, একটি ফ্লপ ছবি রাতারাতি ভাগ্য পাল্টে দেয় এই নায়িকার

আরও পড়ুন: বস্তায় মাথা ঢাকলেন কেন এই টলিউড অভিনেত্রী?

Advertisement