Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Roopa Ganguly Controversy

অভিনেতার কাজ কি শুধুই অভিনয় না কি তা শর্তসাপেক্ষ, রূপা-বিতর্কে কী বলছে টলিপাড়া?

সম্প্রতি ‘মেয়েবেলা’ সিরিয়াল থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। অভিনেত্রীর সিদ্ধান্ত নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

Image of  Roopa Ganguly, Leena Gangopadhyay, Sumanta Mukherjee and Lily Chakraborty

সম্প্রতি ‘মেয়েবেলা’ সিরিয়াল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন অভিনেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৮ মে ২০২৩ ২১:১০
Share: Save:

গত সপ্তাহে ‘মেয়েবেলা’ ধারাবাহিক থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। ধারাবাহিক থেকে সরে দাঁড়ানোর পিছনে রূপার যুক্তি ছিল, সময়ের সঙ্গে রূপার অভিনীত বীথিকা চরিত্রটি এতটাই ‘নেগেটিভ’ হয়ে গিয়েছিল যে, এক জন অভিনেত্রী হিসাবে তিনি তা মেনে নিতে পারেননি।

কিন্তু রূপার সিরিয়াল ছাড়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই সমাজমাধ্যম দ্বিধাবিভক্ত। কেউ বলছেন, এক জন অভিনেতার কাজ অভিনয় করা। ইতিবাচক বা নেতিবাচক, দু’রকম চরিত্রেই তিনি সমান দক্ষতার সঙ্গে অভিনয় করবেন। চরিত্র পছন্দ না হলে সিরিয়াল ছেড়ে দেওয়া অযৌক্তিক। আবার রূপাকে সমর্থন করে অন্য পক্ষের মত, চরিত্রের কাঠামো যদি বদলে যায় সেটা অনৈতিক।

এই মুহূর্তে ‘নিম ফুলের মধু’ সিরিয়ালে অভিনয় করছেন লিলি চক্রবর্তী। রূপার ঘটনাটি সম্পর্কে তিনি অবগত। লিলি বললেন, ‘‘ওকে যদি প্রথমে ইতিবাচক চরিত্র বলা হয় এবং পরে সেটা যদি নেতিবাচক হয়ে যায় সেটা ঠিক নয়।’’ কথা প্রসঙ্গেই বর্ষীয়ান অভিনেত্রী জানালেন যে, তিনি এখন পর্যন্ত এ রকম অভিজ্ঞতার শিকার হননি। কিন্তু অভিনেতার কাজ তো অভিনয়। লিলি বললেন, ‘‘বুঝতে হবে ও তো আগে এ রকম কোনও নেগেটিভ চরিত্র করেনি। তাই ওর খারাপ লাগতেই পারে।’’

বাংলা ছোট পর্দার আর এক বর্ষীয়ান অভিনেতা সুমন্ত মুখোপাধ্যায়। এই মুহূর্তে ‘রামপ্রসাদ’ এবং ‘গৌরী এল’ ধারাবাহিকে দর্শক তাঁকে দেখছেন। সুমন্ত বললেন, ‘‘বিষয়টা শুনেছি, তবে বিশদে জানি না। তাই মন্তব্য করা উচিত হবে না।’’ নেগেটিভ চরিত্র কি অভিনেতার ভাবমূর্তি নষ্ট করতে পারে? সুমন্তের সাফ জবাব, ‘‘আমি তো সারা জীবন খলনায়কের চরিত্রেই অভিনয় করেছি। তাই আজও আমার কাছে সে রকম চরিত্রেরই প্রস্তাব বেশি আসে। তাতে ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে বলে মনে হয় না।’’

সিরিয়ালের চরিত্রের গতিপথ নির্ভর করে চিত্রনাট্যকারের উপরে। এই প্রসঙ্গে আনন্দবাজার অনলাইনের তরফে টলিপাড়ার চিত্রনাট্যকার-পরিচালক লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘‘উনি একজন সিনিয়র অভিনেত্রী এবং সিরিয়ালটাও অন্য প্রযোজনা সংস্থার। তাই এই বিষয়ে মন্তব্য করতে চাই না।’’ লীনার মতে, কোন চরিত্রে তিনি অভিনয় করবেন, অভিনেতা অবশ্যই সেই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। কিন্তু এটা কি ঠিক যে চরিত্র নিয়ে অভিনেতারা কোনও শর্ত দিয়ে থাকেন? লীনার উত্তর, ‘‘কেউ কেউ হয়তো দেন। কিন্তু এটাও ঠিক সবাই শর্ত দিলে তো তা হলে নেগেটিভ চরিত্রে আর কেউ অভিনয় করতেন না!’’ এই প্রসঙ্গেই লীনা জানালেন, তাঁর প্রযোজনায় এখনও কোনও অভিনেতা এ রকম দাবি জানাননি।

রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের সিরিয়াল ছাড়ায় বিভিন্ন মহলে শিল্পীর ‘স্বাধীনতা’ নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। রূপার পদক্ষেপ আগামী দিনে বাকিদের অনুপ্রাণিত করবে না কি আরও বেশি সমালোচনার দৃষ্টি আকর্ষণ করবে সেটাই দেখার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE