Advertisement
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Amrita Rao

ঠিক তারকাসুলভ নয়, অমৃতার বিয়েতে খরচ মোটে দেড় লাখ টাকা, শাড়ির দামও অকল্পনীয়

চুপিচুপি বিয়ে করেন অভিনেত্রী অমৃতা রাও। প্রায় দু’বছর পর বিয়ের খবর আনেন প্রকাশ্যে। মাত্র দেড় লাখ টাকা খরচ হয়েছিল সে বিয়েতে।

Amrita Rao And Rj anmol spend minimum on their wedding here is the reason

খ্যাতনামী রেডিয়ো উপস্থাপক আনমোলের সঙ্গে মুম্বইয়ের ইস্কন মন্দিরে সাত পাকে বাঁধা পড়েন অমৃতা। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
মুম্বই শেষ আপডেট: ২০ মে ২০২৩ ১৭:৫৮
Share: Save:

২০১৪ সালে ১৫ মে চুপিচুপি বিয়ে করেন শাহিদ কপূরের নায়িকা অমৃতা রাও। অভিনেত্রী বিয়েটা এতই চুপিসারে সারেন যে, বিয়েতে খরচ হয় মোটে দেড় লাখ টাকা। যেখানে বলিউডের নায়ক-নায়িকারা বিয়েতে কোটি কোটি টাকা ব্যয় করেন, সেখানে অমৃতা একেবারে ব্যতিক্রমী। খ্যাতনামী রেডিয়ো উপস্থাপক আনমোলের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েন অভিনেত্রী, মুম্বইয়ের ইস্কন মন্দিরে। কিন্তু কী কারণে এমন গোপনীয়তা?

অভিনেত্রী জানান, তিনি বিয়েতে কোনও নামী পোশাকশিল্পীর শাড়ি নয়, বরং একেবারে সাধারণ শাড়ি পরেন। সে শাড়ির দাম ছিল ৩০০০ টাকা। অমৃতা চাননি, তাঁদের বিয়ের খবর পাঁচকান হোক। সেই কারণে আনমোলকে জানিয়েছিলেন, তিনি কোনও দামি ডিজ়াইনার পোশাকে বিয়ে করতে চান না। নিজেই মেকআপ করে চুল বেঁধেছিলেন। দাদার বাজার থেকে কিনেছিলেন শাড়ি। বরের পাজামা-পাঞ্জাবির দাম ছিল আড়াই হাজার টাকা। বিয়ের ভেন্যুর জন্য খরচ হয়েছিল ১১,০০০ টাকা। মঙ্গলসূত্র কিনতে খরচ হয় ১৮,০০০ টাকা।

অমৃতা এক সাক্ষাৎকারে জানান, তাঁরা সব সময় চেয়েছিলেন তাঁদের বিয়েটা হোক পরিবার এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে। অমৃতা সাফ জানান, বিয়েতে দু’জনেই খুব বেশি খরচ করেননি এবং এই সিদ্ধান্তে খুশি তাঁরা।

অভিনেত্রীর স্বামীর কথায়, ‘‘আমরা যেমন মানুষ, আমাদের বিয়েতে যেন সেটারই প্রতিফলন ঘটে। আমাদের দেখে যদি অন্যরা অনুপ্রাণিত হন, সেটাই সার্থকতা। ক্ষমতার বাইরে গিয়ে নয়, বরং সাধ্যের মধ্যেই বিয়ে করাটা উচিত।’’ প্রায় দু’বছর পর নিজেদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আনেন এই দম্পতি। ২০২০ সালে পুত্রসন্তানের বাবা-মা হন অমৃতা-আনমোল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE