Advertisement
৩০ জানুয়ারি ২০২৩

আশঙ্কার মেঘ মাথায় নিয়েই টলিপাড়ায় শুরু শুটিং

বিভিন্ন চ্যানেল কর্তৃপক্ষ এখন ঠারেঠোরে বলছেন, সিরিয়ালে শুটিংয়ের অচলাবস্থা আর দু’-তিন দিন জারি থাকলেও তাঁদের উপরে অসম্ভব চাপ তৈরি হত।

অবশেষে: শুরু হল বাংলা সিরিয়ালের শুটিং। শুক্রবার ইন্দ্রপুরী স্টুডিয়োয়। ছবি: রণজিৎ নন্দী

অবশেষে: শুরু হল বাংলা সিরিয়ালের শুটিং। শুক্রবার ইন্দ্রপুরী স্টুডিয়োয়। ছবি: রণজিৎ নন্দী

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৫ অগস্ট ২০১৮ ০৪:০৫
Share: Save:

ছ’দিন পার করার পরে টলিপাড়ার শুটিংফ্লোরে ফের শোনা গেল, ‘রোল, ক্যামেরা, অ্যাকশন’! শুক্রবার টিভি চ্যানেল কর্তৃপক্ষ, প্রযোজক থেকে অভিনেতা-কলাকুশলীরা অনেকেই যেন স্বস্তির শ্বাস ফেললেন। বিভিন্ন চ্যানেল কর্তৃপক্ষ এখন ঠারেঠোরে বলছেন, সিরিয়ালে শুটিংয়ের অচলাবস্থা আর দু’-তিন দিন জারি থাকলেও তাঁদের উপরে অসম্ভব চাপ তৈরি হত।

Advertisement

একটি চ্যানেলের জনৈক মুখপাত্রের কথায়, ‘‘অগস্ট মাসেই বিভিন্ন চ্যানেলে পুজোর সময়কার বিজ্ঞাপন চূড়ান্ত হয়। টিভি ধারাবাহিক নিয়ে অনিশ্চয়তা জারি থাকলে
সেই বিজ্ঞাপনের একটা বড় অংশ এফএম চ্যানেল বা অন্য কোনও মাধ্যমে চলে যেত। তখন হাত কামড়ানো ছাড়া উপায় ছিল না।’’ এ যাত্রা, মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ সেই পরিস্থিতি এড়িয়েছে। কিন্তু সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের অভিভাবকত্বে মুখ্যমন্ত্রীর গড়ে দেওয়া যৌথ মিটমাট কমিটি ( জয়েন্ট কনসিলিয়েশন কমিটি) বৈঠকে
বসার আগেই শুরু হয়েছে নতুন চিন্তা! ইন্ডাস্ট্রির খবর, শিল্পী-কলাকুশলীদের পিছনে খরচ বাড়লে প্রযোজকেরাও চ্যানেলকে বাজেট বাড়াতে বলবেন। জনৈক চ্যানেল-কর্তার কথায়, ‘‘বছরের মাঝখানে নতুন বাজেটের টাকা পাওয়া মুশকিল।’’ অতএব সংসারের খরচের নিয়মেই চ্যানেলগুলি সিরিয়ালের বাইরে অন্য বিশেষ অনুষ্ঠান (যেমন, মহালয়া বা নববর্ষে হয়) বা বিভিন্ন ইভেন্টের খরচ কাটছাঁট করতে পারে। বিভিন্ন স্টুডিয়োয় কাজের ফাঁকে শঙ্কার মেঘ পুরোপুরি কাটছে না।

আরও পড়ুন: ‘কলকাতার ফুচকা খেতে চাই’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.