• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

যা রটে

Cinema
প্রতীকী ছবি

করোনাকে কুপোকাত?

ক’দিন ধরে ‘মরবে মরো, ছড়িয়ো না’— এই সংলাপটি বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। টলিউডের এক নামী হিরোর উদ্দেশে সেই সংলাপটি আওড়াচ্ছন অনেকেই। সম্প্রতি তিনি সাত সমুদ্র পারে শুটিং করতে গিয়েছিলেন। যাওয়ার আগে অনেকেই সাবধান করেছিলেন তাঁকে। কিন্তু হিরোদের কিছু হয় নাকি? করোনাকে তিনি কুপোকাত করে দেবেন, এই ভাবনা থেকেই উড়ান ধরেছিলেন হিরো। আসলে টাকা বাঁচাতে চেয়েছিলেন। এমনিতেই একটু বেশি ‘সাশ্রয়ী’ হওয়ার জন্য রীতিমতো ‘সুনাম’ রয়েছে এই নায়ক-প্রযোজকের। কিন্তু টাকা বাঁচাতে গিয়ে যে এ বার ইউনিটের অনেকের প্রাণটাই বাঁচত না, সেটা ভাবেননি। পুরো টিম মাস্ক পরে শুটিং করেছে সেখানে। বিদেশের পরিস্থিতি ভাল নয় বুঝতে পেরেও শুটিং চালিয়ে যাচ্ছিলেন হিরো।  কিন্তু যে-ই বুঝলেন তড়িঘড়ি না ফিরলে আর হয়তো দেশে ফেরাই হবে না, তখনই তাঁর বিবেকবোধ জাগ্রত হল। কিন্তু ততক্ষণে যা ছড়ানোর ছড়িয়ে ফেলেছেন। বিদেশে গিয়ে তিনি কী কী ডায়লগ দিয়েছিলেন, তা কিন্তু ইউনিটের বাকিরা ইতিমধ্যেই এখানে ভাইরাল করে দিয়েছেন!

যখন যেমন...

ক্রনিক ডিপ্রেশন বহুদিন ধরেই তাঁর সঙ্গী, বলে নিন্দুকেরা। বয়স বেশি নয়, কাজের সময় এবং সুযোগও অঢেল পড়ে রয়েছে। তবুও তাঁর মনে হয়, যথেষ্ট কাজ পাচ্ছেন না তিনি। কাজ কী ভাবে পেতে হয়, তার চেনা রাস্তাতে তাই প্রথম থেকেই হাঁটতে শুরু করে দিয়েছেন নেক্সট জেনারেশনের এই নায়িকা। আর সে রাস্তায় বাছবিছার করছেন না মোটেই। ছবি করতে গিয়ে তার পরিচালকের সঙ্গেই প্রেম-অভিযানে জড়িয়ে পড়েছিলেন। তার পরে এক গায়কপুত্রের পুরনো গিটারেও সুর তুলেছেন ইনি। তবে বাইশ গজের বাইরে এমন ভাবে ব্যাটিং করে ঠিক কতটা সুবিধে করতে পারবেন তিনি, তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। এর আগে একসঙ্গে ছবি করার সুবাদে তথাকথিত ‘ক্লিন ইমেজ’ধারী এক বিবাহিত নায়কের সঙ্গে প্রেম করেছিলেন কিছুদিন। যে নায়ক প্রায়ই স্ত্রীয়ের সঙ্গে গদগদ ছবি পোস্ট করেন। তবে এ সবের বাইরেও টুকটাক প্রেম হয়েছে। ইদানীং একজনের সঙ্গে তাঁকে ছবি পোস্ট করতে দেখা যাচ্ছে, যিনি ইন্ডাস্ট্রির কেউ নন। তিনি কি তবে টাইমপাস?

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন