Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩
Entertainment News

বয়ফ্রেন্ড আছে? মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ‘মিনু’ বলল…

‘চোখের বালি’ ধারাবাহিকে ‘সরযূ’ চরিত্রে প্রথম শ্যামৌপ্তির কাজ দেখেছিলেন দর্শক। তার পর ‘দাসী’ ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ আসে। ‘বাজলো তোমার আলোর বেণু’ নামের সঙ্গেই জড়িয়ে রয়েছে বাঙালির নস্টালজিয়া। শ্যামৌপ্তির চরিত্র, অর্থাত্ মিনু মায়ের চোখ আঁকে। মৃত্শিল্পী।

অভিনেত্রী চলতি বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী।

অভিনেত্রী চলতি বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী।

স্বরলিপি ভট্টাচার্য
শেষ আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০১৯ ১২:৩৯
Share: Save:

‘বাজলো তোমার আলোর বেণু’র সেট। এক দিকটা আধো অন্ধকার। অন্য দিকে পরের সিনের জন্য প্রস্তুতি চলছে। আধো অন্ধকারে রাখা একটা সোফায় এসে বসল এই ধারাবাহিকের ‘মৃন্ময়ী’ ওরফে ‘মিনু’।

Advertisement

একঢাল লম্বা চুলে বিনুনি। শাঁখা, পলা, সিঁদুরের টিপে ঘেরা চেহারায় আলগোছে জড়িয়ে রয়েছে লাবণ্য। কিন্তু ‘মিনু’কে দেখে আপনি বিশ্বাস করবেন, অভিনেত্রী চলতি বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী?

এ তথ্য নির্ভুল। ‘‘আনন্দআশ্রম বালিকা বিদ্যাপীঠ থেকে এ বছর মাধ্যমিক দিলাম। এখানে সবার থেকে আমি ছোট। ভাল কাজ করার চেষ্টা করছি,’’ হেসে বলল শ্যামৌপ্তি।

আরও পড়ুন, ‘বাজলো তোমার আলোর বেণু’র ‘জাহ্নবী’ আসলে কেমন?

Advertisement

‘চোখের বালি’ ধারাবাহিকে ‘সরযূ’ চরিত্রে প্রথম শ্যামৌপ্তির কাজ দেখেছিলেন দর্শক। তার পর ‘দাসী’ ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ আসে। ‘বাজলো তোমার আলোর বেণু’ নামের সঙ্গেই জড়িয়ে রয়েছে বাঙালির নস্টালজিয়া। শ্যামৌপ্তির চরিত্র, অর্থাত্ মিনু মায়ের চোখ আঁকে। মৃত্‌শিল্পী।


শ্যামৌপ্তির অভিনয় পছন্দ করছেন দর্শক।

প্রস্তুতি কেমন ছিল? শ্যামৌপ্তি শেয়ার করল, ‘‘আমার বয়সের থেকে অনেক বড় মিনু। কী ভাবে ও ঘরে-বাইরে সামলাচ্ছে সেটা এখানে রয়েছে। মায়ের চোখ আঁকতে পেরেছে ও। একটা সময় ছিল ছেলেরাই মায়ের চোখ আঁকবে। সেই প্রথা ভাঙতে চেয়েছিল। ভাঙতে পেরেছে। এ বার ‘সোম’-কে পাওয়া ওর লক্ষ্য। এমন অনেক সিন আছে কী ভাবে করব বুঝতে পারি না। জানি না। সেটা জেনে নিই। সুদীপাদি লুক সেট থেকেই খুব সাপোর্ট করেছে। চরিত্রটা বুঝিয়েছিল। ধরুন, কাঠামো বাঁধছি বা সিংহের কেশর আঁচড়াচ্ছি। কী ভাবে করব বলে দিয়েছিল। ফ্লোরে থাকতে পারলে তো ভালই। না হলে ফোনে বলে দিত। আর ফ্লোরে অগ্নি আঙ্কেল হেল্প করে খুব।’’

আরও পড়ুন, ‘সহবাসে’ ইশা-অনুভব, টলিউডে নতুন জুটি

বাবা, মা তো বটেই, দাদু এবং দিদারও বড় আদরের শ্যামৌপ্তি। অভিনয়ের ক্ষেত্রে সকলেই এনকারেজ করেন। বাবা আইনজীবী। ভবিষ্যতে বাবার মতো আইন নিয়ে পড়তে চান অভিনেত্রী। ‘‘পড়াশোনা আর শুটিং, দুটো ম্যানেজ করা খুব সহজ নয়। বাবার মতো আইন নিয়ে পড়ার ইচ্ছেই আছে। তবে অভিনয় ভালবেসে ফেলেছি। ভাল কাজের সুযোগ এলে আর্টস নিয়ে পড়ব। তখন সায়েন্স পড়াটা চাপের হয়ে যাবে। স্কুলে টিচাররা বরাবরই ভালবাসেন। সাপোর্ট করেন। ওঁদেরও শুধু একটা কথা, পড়াশোনাটা ছাড়িস না,’’ হেসে বললেন শ্যামৌপ্তি।


বাবা, মা তো বটেই, দাদু এবং দিদারও বড় আদরের শ্যামৌপ্তি।

পড়াশোনা এবং অভিনয় সমানতালে সামলাচ্ছেন। স্কুলের গণ্ডি পেরিয়ে যাওয়া মেয়েটির কি বয়ফ্রেন্ড আছে? প্রশ্ন শুনেই হেসে ফেলল শ্যামৌপ্তি। ‘‘না না। বয়ফ্রেন্ড নেই আমার। ক্লাস ফাইভ পর্যন্ত কোয়েড স্কুলে পড়েছি। তার পর গার্লস স্কুলে শিফট করে যাই। কোনও কোচিংয়ে পড়িনি। বাড়িতে এসে পড়াতেন সকলে। আর ডান্স ক্লাসে যাদের পেয়েছি তাদের সঙ্গে এমন বন্ডিং তৈরি হয়ে গিয়েছিল যে ‘দাদা’ বলে ডাকতাম। এ ব্যাপারে বন্ধুদের হেল্প করি। কিন্তু নিজের ক্ষেত্রে কাউকে এন্ট্রি দিই না। ক্লাস ফাইভে একটা ছেলে আমার ব্যাগের ওপর একটা চিঠি দিয়ে গিয়েছিল। আমি এত বুঝতাম না এ সব তখন। ভয়ও লাগত। যদি মা ধরে ফেলে…। সত্যি বলছি, এখনও আমার বয়ফ্রেন্ড নেই,’’ সিক্রেট শেয়ার করল দর্শকের আদরের ‘মিনু’।

আরও পড়ুন, ‘আমি তোমাকে ভালবাসি’ দেবকে প্রকাশ্যে বললেন রুক্মিণী

শট রেডি। ফের অ্যাকশন, কাট-এর দুনিয়ায় ফেরার পালা। ফের ‘মিনু’ হওয়ার পথে পা বাড়াল শ্যামৌপ্তি।

(সেলেব্রিটি ইন্টারভিউ, সেলেব্রিটিদের লাভস্টোরি, তারকাদের বিয়ে, তারকাদের জন্মদিন থেকে স্টার কিডসদের খবর - সমস্ত সেলেব্রিটি গসিপ পড়তে চোখ রাখুন আমাদের বিনোদন বিভাগে।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.