Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Raghu Dakat: ‘গোলন্দাজ’ নয়, দেবের পুজো-মুক্তি হওয়ার কথা ছিল ‘রঘু ডাকাত’?

‘ফুটবলের জনক’ নয়, তার আগে নাকি ‘রঘু ডাকাত’-কেই পর্দায় আনার ভাবনা ছিল পরিচালক ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১২ নভেম্বর ২০২১ ১৯:১৯
 ‘রঘু ডাকাত’- এর ভূমিকায় অভিনেতা দেব।

‘রঘু ডাকাত’- এর ভূমিকায় অভিনেতা দেব।

বাংলায় এক সপ্তাহে ২ কোটি টাকার ব্যবসা। তার পরেই ‘গোলন্দাজ’ জাতীয় স্তরে। নতুন করে পর্দা কাঁপাচ্ছেন হিন্দিভাষী নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারী। অথচ গুঞ্জন বলছে— ‘ফুটবলের জনক’ নয়, তার আগে নাকি ‘রঘু ডাকাত’-কেই পর্দায় আনার ভাবনা ছিল পরিচালক ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়ের।
তা হলে নগেন্দ্রপ্রসাদ আগেভাগে পর্দার দখল পেলেন কী ভাবে? টলিপাড়ার খবর, পুরোটাই নাকি ঘটেছে অতিমারির জন্য। একে লকডাউন পরিস্থিতি, তাতে কোভিড সংক্রমণ এড়িয়ে সেই সময় ‘লার্জার দ্যান লাইফ’কে ক্যানবন্দি করা সহজ ছিল না। নগেন্দ্রপ্রসাদকে সঠিক ভাবে পরিবেশন করতেই দু’বছরেরও বেশি সময় চলে গিয়েছে পরিচালক-প্রযোজকের। রঘু ডাকাত আগে তৈরি হলে তার চেয়েও বেশি সময় লেগে যেত। পরিস্থিতি বুঝেই বদলে গিয়েছে ছবির বাছাই। অতিমারি এখন তুলনায় বশে। তাই ফাঁস হয়েছে পরিচালকেরও গোপন ইচ্ছেও।

টলিপাড়ার অঙ্ক অনুযায়ী, দেব, এসভিএফ, ধ্রুবর ত্রয়ী মানেই ইশা সাহা! তা হলে কি নায়িকা নাকি আরও এক বার ফিরতে পারেন ‘রঘু ডাকাত’-এ? ইশা যদিও এ খবরে মান্যতা দেননি। পরিচালকেরও মুখে কুলুপ। তবে ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, আপাতত চিত্রনাট্য ঘষামাজা চলছে। সেই কাজ শেষ হলে বাকি অভিনেতাদের কথা ভাববেন ধ্রুব। সেই কারণেই নাকি শ্যুটিংয়ের জায়গাও বাছা হয়নি।

Advertisement

ইতিমধ্যেই ছবির পোস্টার, মোশন পোস্টার প্রকাশ্যে। ‘কিশমিশ’ ছবির খাতিরে অনেকটাই ওজন ঝরিয়েছিলেন দেব। সেই কাজ শেষ হতেই ফের ওজন বাড়াতে হয়েছে। রঘু ডাকাত বলে কথা! প্রথম ঝলকে তার ছাপ স্পষ্ট। বহু যত্নে এমন পেশিবহুল চেহারা গড়েছেন সাংসদ-তারকা। বাংলার ইতিহাস ঘাঁটলে রঘু ডাকাতের পাশাপাশি নাম উঠে আসে তাঁর দাদা বুধো ডাকাতেরও। দুই ভাই-ই নাকি দিনে ছদ্মবেশে থাকতেন। রাতে বেরোতেন ডাকাতি করতে। বুধো ডাকাতও কি ছবিতে সমান গুরুত্ব পাবেন? এর আগে এক সাক্ষাৎকারে ধ্রুব জানিয়েছিলেন, তাঁর ছবিতে বাংলার গল্প থাকবে। হুবহু ইতিহাস উঠে আসবে না কখনওই। ছবির পোস্টারে উঠে এসেছে সেই ভাবনাই। পরিচালক বলেছেন— রূপকথা, লোককথা, কিংবদন্তি মিলিয়ে তাঁর আগামী ছবি। কল্পনায় ভর করেই ফেলে আসা দিনের কাহিনি ডানা মেলবে বড় পর্দায়।
‘গোলন্দাজ’ হিট ফুটবল, স্বদেশপ্রেম, আর নগেন্দ্রপ্রসাদের রোমান্সে। ‘রঘু ডাকাত’ কী দিয়ে জিতবে দর্শক-মন? জানার উপায় নেই। সূত্র বলছে, বাংলার ভয়াল-সুন্দর চরিত্র বন্দি ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়ের টেবিলে রাখা ছোট্ট ডায়েরিতে। কলমের আঁচড়ে সেখানেই রোজ বদলে যাচ্ছে চরিত্রের আকার-অবয়ব। নতুন চরিত্রদেরও নিত্য আনাগোনা। আপাতত তাই রঘু ডাকাতের উপরে আলো ফেলছে শুধু টেবিল ল্যাম্প। খুব শিগগিরিই নাকি হানা দেবে আর্ক লাইটের চড়া আলো!

আরও পড়ুন

Advertisement