সোশ্যাল মিডিয়ায় রণবীর কপূর এবং আলিয়া ভট্টের ‘বিয়ের কার্ড’ সোমবার থেকেই ঘুরে বেড়াচ্ছে। আসমানি নীল আর ঘিয়ে রঙের সেই কার্ডে বড় বড় করে লেখা, ‘মিসেস নিতু এবং মিস্টার ঋষি কপূর রণবীর এবং আলিয়ার বিয়ের অনুষ্ঠানে আপনাদের সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছে।’ বিয়ের তারিখ পরের বছর ২২ জানুয়ারি। জায়গা উমেদ ভবন প্যালেস, রাজস্থান।

সেই কার্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই ভাইরাল। চারিদিকে ফ্যানেদের শুভেচ্ছাবার্তার ছড়াছড়ি।কোনও কোনও সংবাদমাধ্যমেও ঘটা করে প্রকাশিত হয়েছে তাঁদের বিয়ের খবর। নেটিজেনরা আর এক হেভিওয়েট বিয়ে দেখতে পাবে ভেবে আনন্দে আটখানা।

কিন্তু এ কী! আলিয়ার নামে নীচে লেখা ‘ডটার অব মিসেস সোনি রাজদান এবং মুকেশ ভট্ট’। আলিয়ার বাবা তো মহেশ ভট্ট! মুকেশ ভট্ট তো নন! তবে? তবে আর কি? গোটা বিষয়টাই একেবারে ভুয়ো। ইংরেজিতে যাকে বলে ‘ফেক’। হ্যাঁ, বিয়ে ওঁরা খুব শীঘ্রই করবেন, তবে এখনও দিনক্ষণ স্থির করেননি তাঁরা। বা করে থাকলেও জনসমক্ষে সে নিয়ে কিছু জানাননি।

আরও পড়ুন-অ্যাকাউন্টে ১৮ টাকা, ছিল না খাবার, জামাকাপড়ও: রাজকুমার রাও

 

আরও পড়ুন-ক্রিকেটার কে এল রাহুলের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন নিধি আগরওয়াল

 

অতএব 'রালিয়া' ভক্তগণ, এখনই বিয়ের সানাই বাজছে না কপূর বা ভট্ট পরিবারের অন্তরে। আর একটু ধৈর্য ধরেই রাখুন, কথায় বলে না, ‘সবুরে মেওয়া ফলে’।

দেখে নিন সেই কার্ড