• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শেষ কথা বলবেন দর্শকই

Kareena Kapoor Khan
করিনা

কিছু দিন আগে সেফ আলি খান বলেছিলেন, তারকা সন্তান হওয়া সত্ত্বেও কেমন ভাবে তিনি নেপোটিজ়মের শিকার হয়েছিলেন। এ বার মুখ খুললেন তাঁর স্ত্রী করিনা কপূর খান। তবে করিনার সুর সেফের চেয়ে খানিক আলাদা। তিনি নিজে নেপোটিজ়মের শিকার হয়েছেন এমনটা নয়। বরং ঐতিহ্যশালী কপূর পরিবারের কন্যা হওয়ার সুবাদে খানিকটা সুবিধা তো পেয়েছিলেনই। যদিও কপূর পরিবারে একটা সময়ে বাড়ির মেয়েদের সিনেমায় অভিনয় করা নিয়ে আপত্তি ছিল। করিশ্মা কপূর প্রথম সেই প্রথা ভেঙেছিলেন, তার পর করিনা। অভিনেত্রী বলছেন, ‘‘আমি ইন্ডাস্ট্রিতে ২১ বছর ধরে কাজ করছি। স্বজনপোষণের সুবিধে ব্যবহার করে এত দিন টিকে থাকা যায় না। এমন অনেক তারকা সন্তান আছেন, যাঁরা বিনোদন জগতে সুবিধে করতে পারেননি।’’

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে তারকা সন্তানেরা আমজনতার রোষের মুখে পড়েছেন। ট্রোলিংয়ের জন্য সোনাক্ষী সিংহ, আলিয়া ভট্ট, সোনম কপূরেরা ইনস্টাগ্রামে লিমিটেড কমেন্ট করে দিয়েছিলেন। সেই তালিকায় ছিলেন করিনা কপূর খানও। সম্প্রতি তিনি সেই ফিল্টার উঠিয়ে দিয়েছেন। করিনার কথায়, ‘‘স্ট্রাগল আমাকেও করতে হয়েছে। কিন্তু যে পকেটে দশ টাকা নিয়ে সব ছেড়ে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করার জন্য এসেছে, তার স্ট্রাগলের তুলনায় আমারটা নগণ্য। কিন্তু তাতে আমার অপরাধবোধে ভোগার অর্থ হয় না। আমাদের তৈরি করেছেন দর্শক। তাঁদের জন্যই আমরা স্টার। কেন নেপোটিজ়ম নিয়ে এত শোরগোল হচ্ছে জানি না! একটা সিনেমার, একজন অভিনেতার ভবিষ্যৎ কী হবে, শেষ বলবেন দর্শকই।’’ নেপোটিজ়মের উল্টো স্রোতে সফল অভিনেতাদের উদাহরণে শাহরুখ খান, অক্ষয়কুমার, আয়ুষ্মান খুরানা, রাজকুমার রাওয়ের নামও করেছেন করিনা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন