• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আরএসএস শাখায় কেটেছে ছেলেবেলা

Milind Soman
মিলিন্দ

মঙ্গলবার বিকেল থেকেই টুইটারে ট্রেন্ডিং মডেল-অভিনেতা-ফিটনেস বিশেষজ্ঞ মিলিন্দ সোমন। তার কারণ, তাঁর ছেলেবেলার সঙ্গে যোগ রয়েছে আরএসএস শাখার। সম্প্রতি ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ নামে স্মৃতিকথা প্রকাশ করেছেন অভিনেতা। তারই কিছুটা অংশ প্রকাশিত হয়েছে একটি ওয়েব পোর্টালে। সেখান থেকেই তিনি খবরের শিরোনামে।

নিজের বইয়ে মিলিন্দ লিখেছেন, ‘‘আমার বাবার অগাধ বিশ্বাস ছিল যে, ছোট ছেলেদের নিয়মানুবর্তিতা, শারীরচর্চা ও ঠিকমতো ভাবতে শেখানোর জন্য আরএসএস-এর জুনিয়র ক্যাডার হওয়া উপযোগী।’’ তবে ছোটবেলায় যখন তাঁকে জোর করে শাখায় পাঠানো হয়েছিল, তখন প্রথম দিকে বিষয়টি উপভোগ করেননি মিলিন্দ।

নিজের অভিজ্ঞতার সঙ্গে আরএসএসের সাম্প্রতিক ভাবমূর্তি মেলাতে পারেন না অভিনেতা। তিনি লিখেছেন, ‘‘শাখায় রোজ সন্ধে ছ’টা থেকে সাতটা পর্যন্ত আমরা যা যা করতাম, তার সঙ্গে ‘সাম্প্রদায়িক’, ‘রক্ষণশীল’ এই কথাগুলো মেলাতে পারি না। উর্দি-শর্টস পরে আমরা যোগাসন করতাম। জিমে কোনও রকম যন্ত্রপাতি ছাড়াই ওয়র্কআউট করতাম। সংস্কৃতে কিছু শ্লোক বলতাম, যার মানেও বুঝতাম না আর খেলা করতাম...’’ মিলিন্দের এই সুখস্মৃতি নিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক মতার্দশের মানুষ বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করেছেন টুইটারে। তবে অভিনেতা এবং তাঁর স্ত্রী অঙ্কিতা কোনওয়ার পুরো বিষয়টিতে বেশ মজা পেয়েছেন। নানা ধরনের প্রতিক্রিয়া পাওয়ার পরে মিলিন্দের টুইট, ‘‘দশ বছর বয়সের একটা অভিজ্ঞতার জন্য ৫৪ বছর বয়সে ট্রেন্ডিং হচ্ছি...’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন