নবনীতা দাস। টেলি পাড়ার চেনা মুখ। ২০১৫-এ ‘দীপ জ্বেলে যাই’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে ডেবিউ করেন তিনি। তাঁর অভিনয় দর্শকদের ভাল লেগেছিল। সেই অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত জীবনে এ বার কিছু পরিবর্তন আসতে চলেছে। বিয়ে করতে চলেছেন নবনীতা। পাত্র কে জানেন?

পাত্রকেও বাংলা টেলিভিশনের দর্শক ভালই চেনেন। তিনিও অভিনয়ের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় মুখ। জিতু কমল। টেলি পাড়ার এই দুই অভিনেতা সাতপাকে বাঁধা পরতে চলেছেন আগামী ৬মে। আগামী ৮মে রিসেপশন।

বিয়ের জন্য শুভেচ্ছা জানাতেই জিতু বললেন, ‘‘আমাদের বেশিদিনের আলাপ নয়। কেউ কাউকে প্রোপোজও করিনি। ইনফ্যাক্ট নবনীতা আমাকে কেন পছন্দ করেছে তাও জানি না। কী ভাবে যেন হয়ে গেল। এত তাড়াতাড়ি বিয়ে করবও ভাবিনি। ভেবেছিলাম, পুজোর পর অগ্রহায়ণে হবে। খুব তাড়াতাড়িই হল সব কিছু।’’

আরও পড়ুন, ইন্ডাস্ট্রিতে সকলকেই কাজের জন্য বলি, কিন্তু…

আলাপের ইতিহাস খোলসা করলেন পাত্রী নিজেই। নবনীতার কথায়, ‘‘২০১৮-র শেষে ‘অর্ধাঙ্গিনী’ করতে গিয়ে আমাদের আলাপ। স্ক্রিন শেয়ার করেছি ওখানে। শুটিং চলাকালীন তেমন কথা হত না। শুটিং শেষ হওয়ার পর কথা শুরু হয়েছে আমাদের। মানে উল্টো হয়েছে ব্যাপারটা।’’

আরও পড়ুন, ‘কণ্ঠ’ই সম্পদ, কিন্তু তা যদি হারিয়ে যায়...

সদ্য একটা অপারেশন হয়েছে নবনীতার। তাই তার আগেই বিয়ের শপিং কিছুটা সেরে রেখেছেন। এখন বাড়িতে ডিজাইনার ডেকে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। গত ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে ধারাবাহিক ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’। সেখানে মা তারার ভূমিকায় অভিনয় করছেন নবনীতা। জিতুও অভিনয় করেছন এই ধারাবাহিকে। পাশাপাশি প্রয়াত অঞ্জন চৌধুরির ছেলে সন্দীপ চৌধুরির পরিচালনায় ‘বিদ্রোহিনী’ এবং রেশমী মিত্রর পরিচালনায় ‘লাইমলাইট’-এ কাজ করেছেন। এই দুই ছবিতেই জুটি স্ক্রিন শেয়ার করেছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর সঙ্গে।

(টলিউডের প্রেম, টলিউডের বক্স অফিস, বাংলা সিরিয়ালের মা-বউমার তরজা -বিনোদনের সব খবর আমাদের বিনোদন বিভাগে।)