Advertisement
০৫ ডিসেম্বর ২০২২

নানার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার প্রমাণ নেই, রিপোর্ট পুলিশের

পুলিশের ডেপুটি কমিশনার পরমজিৎ সিংহ দাহিয়া বুধবার জানান, অন্ধেরির মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ‘বি সামারি’ রিপোর্ট পেশ করেছে ওশিওয়াড়া পুলিশ।

নানা পটেকর

নানা পটেকর

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ১৪ জুন ২০১৯ ০৪:১১
Share: Save:

যৌন হেনস্থা-কাণ্ডে কিছুটা স্বস্তিতে অভিনেতা নানা পাটেকর। তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। স্থানীয় আদালতের কাছে গত কাল মুম্বই পুলিশ জানিয়েছে, ওই ঘটনায় নানার বিরুদ্ধে কোনও তথ্যপ্রমাণ মেলেনি।

Advertisement

পুলিশের ডেপুটি কমিশনার পরমজিৎ সিংহ দাহিয়া বুধবার জানান, অন্ধেরির মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ‘বি সামারি’ রিপোর্ট পেশ করেছে ওশিওয়াড়া পুলিশ। চার্জশিট তৈরির জন্য অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যখন যথেষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায় না, তখন ‘বি সামারি’ রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়। গত বছর অক্টোবরে নানার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন তনুশ্রী। তাঁর দাবি ছিল, ২০০৮-এ ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবিতে গানের শুটিংয়ের সময়ে তাঁকে যৌন হেনস্থা করেছিলেন নানা। তনুশ্রীর আরও অভিযোগ, গানের শুটিংয়ে আপত্তি সত্ত্বেও নানা একাধিক বার তাঁকে আপত্তিকর ভাবে ছুঁয়েছিলেন।

তনুশ্রী দত্তের আইনজীবী নিতিন সতপুতে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, পুলিশ তাঁদের এখনও কিছু লিখিত জানায়নি। মামলা খারিজ করা হলে তাঁরা আদালতের দ্বারস্থ হবেন।

আগে এ-ও শোনা যাচ্ছিল, নানা ক্লিনচিট পেয়ে গিয়েছেন। যদিও সতপুতে সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, ‘‘সব কিছুর একটা নির্দিষ্ট পদ্ধতি আছে। পুলিশকে তা মেনে চলতে হয়। যা-ই হোক, সেটা অভিযোগকারিনীকেও লিখিত জানাতে হয়। অতএব যা শোনা যাচ্ছে, সেটা গুজব। মানসিক ভাবে দুর্বল করা দেওয়ার জন্য এই সব খেলছেন নানা।’’ আইন অনুযায়ী, পুলিশি রিপোর্টে নানা ক্লিন চিট পেয়ে গেলেও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আদালত দু’পক্ষেরই বক্তব্য শুনবে।

Advertisement

সতপুতের দাবি, নানা পুলিশকে দীর্ঘদিন ধরেই চাপ দিয়ে এসেছেন, বিভ্রান্তও করেছেন। পুলিশ যে নানার বিরুদ্ধে তথ্যপ্রমাণ পায়নি বলে রিপোর্ট দিয়েছে, তা-ও নস্যাৎ করেছেন তিনি। একই বক্তব্য তনুশ্রীরও। তিনি বলেন, ‘‘সম্পূর্ণ দুর্নীতিগ্রস্ত আমাদের পুলিশের বাহিনী। আরও দুর্নীতিগ্রস্ত লোক নানা পটেকরকে ক্লিন চিট দিয়ে দিচ্ছে আমাদের বিচারব্যবস্থা! ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আরও মহিলাদের হেনস্থা করেছেন নানা।’’ অভিনেত্রীর দাবি, সব সাক্ষীর বয়ান এখনও রেকর্ড করেনি পুলিশ। কিছু ভুয়ো লোককে সাক্ষী সাজিয়ে বয়ান নিয়েছে পুলিশ। তনুশ্রী বলেন, ‘‘আমার সাক্ষীদের বয়ান নেওয়া হয়নি। কেন এত তাড়াহুড়ো করে বি সামারি রিপোর্ট দেওয়া হল!’’ শেষে তনুশ্রীর মন্তব্য, ‘‘আমি একেবারেই স্তম্ভিত নই, চমকেও যাইনি। যদি ধর্ষণে অভিযুক্ত অলোক নাথ ক্লিন চিট পেয়ে অভিনয়ে ফিরতে পারেন, তা হলে নানা রেহাই পাবেন না কেন? ফের নিরীহ মেয়েদের হেনস্থা করবেন!’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.