• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লকডাউনে পোষ্যদের আনন্দে রাখার জন্য কী করলেন প্রিয়াঙ্কা?

priyanka sarkar
পোষ্যর সঙ্গে প্রিয়ঙ্কা। নিজস্ব চিত্র।

সাদা শর্টস আর হলুদ হল্টার টপ, খোলা চুলে প্রিয়াঙ্কা সরকার খেলে বেড়াচ্ছেন তাঁর দুই বাচ্চা ‘হোপ’ আর ‘শ্যাডো’-র সঙ্গে। লকডকাউনে গৃহবন্দি প্রিয়াঙ্কা কখনও মাটিতে বাটি নিয়ে খেলাচ্ছেন তাঁর আদরের পোষ্যদের। কখনও আবার তারা প্রিয়াঙ্কার গায়ে এসে পড়ছে। শুধু ছেলে ‘সহজ’ নয়, সে ভাবে দেখতে গেলে প্রিয়াঙ্কার এখন তিন সন্তান। সকলকেই লকডাউনে ভাল রাখার দায়িত্ব তাঁর।

কেমন করে সামলাচ্ছেন দায়িত্ব? আনন্দবাজার ডিজিটালকে প্রিয়াঙ্কা বললেন, “আমার দুই পোষ্য ‘হোপ’ আর ‘শ্যাডো’  লকডাউনে গৃহবন্দি। ওরা বাইরে যেতে পারছে না। ওদেরও সক্রিয় রাখা প্রয়োজন, সেই কারণে বাড়িতেই নানা রকম খেলা  খেলাচ্ছি। এই সময় বাড়ির মেঝে পরিষ্কারের দিকে সকলের নজর। বাড়ির মেঝে জীবাণুমুক্ত রাখার জন্য, পোষ্যদেরও সুস্থ রাখার সচেতনতায় একটি সংস্থার ফিনাইলের বিজ্ঞাপন করলাম।”

আরও পড়ুন- মোদীর দ্বারস্থ সুশান্তের পরিবার, রিয়া সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য দেহরক্ষীর

 

পোষ্য ‘হোপ’ আর ‘শ্যাডো’  লকডাউনে গৃহবন্দি। নিজস্ব চিত্র 

বাড়ি থেকেই শুট করে ডিজিটাল মাধ্যমে বিজ্ঞাপনের কাজ করে খুশি প্রিয়াঙ্কা। বললেন, “পোষ্যদের ক্যামেরা ফ্রেন্ডলি করতে একটু সময় লেগেছে। তবে বাড়ি থেকে শুট করে পরে আসল ভিডিয়ো দেখে খুব ভাল লেগেছে।” শুধু প্রিয়াঙ্কাই নয়, এই সংস্থার বিজ্ঞাপনের প্রচারে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় থেকে শ্রাবন্তী, অঙ্কুশ— সবাইকেই দেখা গিয়েছে।

এই উদ্যোগে এগিয়ে এসেছেন এসভিএফ সংস্থার কর্ণধার মহেন্দ্র সোনিও। তিনি বললেন, “পোষ্যদের সম্পর্কে সচেতনতার জন্য এই ধরনের বিজ্ঞাপনের পাশে থাকতে পেরে ভাল লাগছে।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন