Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পাশে আছি, বলিউড

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে যে ভাবে ইন্ডাস্ট্রির একাংশ আক্রান্ত হচ্ছেন, তার প্রভাব সরাসরি পড়ছে তাঁদের কাজ, সোশ্যাল লাইফ এবং ভাবমূ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০২:০৬
অভিষেক ও ফারহান

অভিষেক ও ফারহান

নিত্য নতুন অভিযোগ, পরস্পরের প্রতি দোষারোপ ও নেতিবাচক চর্চার কেন্দ্র হয়ে উঠেছে বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে যে ভাবে ইন্ডাস্ট্রির একাংশ আক্রান্ত হচ্ছেন, তার প্রভাব সরাসরি পড়ছে তাঁদের কাজ, সোশ্যাল লাইফ এবং ভাবমূর্তিতেও। সব মিলিয়ে সমগ্র ইন্ডাস্ট্রির ইমেজ প্রশ্নচিহ্নের মুখে। এর প্রতিবাদস্বরূপ শুক্রবার একটি খোলা চিঠি প্রকাশ করল প্রোডিউসর্স গিল্ড অব ইন্ডিয়া। তার সারমর্ম খানিকটা এই রকম, ‘‘এক প্রতিশ্রুতিমান তরুণ অভিনেতার অকালমত্যুকে হাতিয়ার করে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি ও তার সদস্যদের প্রতি তীব্র আক্রমণ নেমে এসেছে সাম্প্রতিক অতীতে। বাইরের লোকের কাছে এমন ভাবে ইন্ডাস্ট্রিকে তুলে ধরা হচ্ছে, যাতে এক ভয়ঙ্কর ইমেজ গাঁথা হয়ে যাচ্ছে লোকের মনে। অথচ তা সত্যি নয়, সত্যির অপব্যাখ্যা।’’ অন্য ইন্ডাস্ট্রির মতোই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিরও সংশোধনের প্রয়োজন রয়েছে, বলে মনে করে প্রোডিউসর্স গিল্ড। কেরিয়ার তৈরি করতে এসে আর সব জায়গার মতোই এখানেও স্ট্রাগল, পলিটিক্স, রিজেকশনের মুখোমুখি হতে হয়। বিপরীতে এটাও সত্যি, বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি হাজার হাজার মানুষের রুজি-রোজগারের জায়গা। ‘‘দেশের মানুষকে বিনোদন জোগানো, বিভিন্ন প্রান্তের প্রতিভার সম্মেলন ও বিকাশ, যে কোনও জাতীয় বিপর্যয়ে দেশের পাশে দাঁড়ানোর মতো কাজও এই ইন্ডাস্ট্রিই করে এসেছে। সম্পূর্ণ বাইরে থেকে এসেও বহু প্রতিভাবানশিল্পী এখানে কাজ করে থাকেন, যাঁরা ইন্ডাস্ট্রির স্তম্ভ। এই কঠিন সময়ে একে অন্যের প্রতি বিষোদ্‌গার না করে আমাদের উচিত পরস্পরের পাশে থাকা,’’ বক্তব্য গিল্ডের।
ট্রোলিং, মহিলাদের ধর্ষণ ও খুনের হুমকি, নেপোটিজ়মের বিরোধিতার বার্তাও উঠে এসেছে বিবৃতিতে। সংবাদমাধ্যমকেও সহানুভূতিশীল হওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে। এই বিবৃতি রিটুইট করেছেন অভিষেক বচ্চন, ফারহান আখতার, সোনম কপূর, দিয়া মির্জ়া, সুজয় ঘোষ, রাকেশ ওমপ্রকাশ মেহরা, একতা কপূর-সহ ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement