Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩
Madhurima Basak

লোকে আমায় ডাইনি বলছে মানে আমি ভাল কাজ করছি, সফল হয়েছি: মধুরিমা

‘গুড্ডি’ সিরিয়ালে তাঁকে দর্শক দেখছেন শিরিন চরিত্রে। মিষ্টি মুখের খলনায়িকার উপর ক্ষুব্ধ অনেকেই। আসে নানা কটু মন্তব্য। এমন কথা গায়ে লাগে মধুরিমার?

নেতিবাচক মন্তব্য কতটা প্রভাব ফেলে অভিনেত্রী মধুরিমা বসাকের মনে?

নেতিবাচক মন্তব্য কতটা প্রভাব ফেলে অভিনেত্রী মধুরিমা বসাকের মনে? ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ ১৭:২৮
Share: Save:

গুড্ডি, অনুজ, শিরিনের জীবনে ঝড় যেন থামতেই চায় না। শুরুর দিন থেকেই টানাপড়েন। অনুজ কার? গুড্ডির প্রতি নিজের দুর্বলতা বুঝতে অনেকটাই দেরি করে ফেলেছে অনুজ। ফলে তৈরি হয়েছে আরও এক ভয়ানক পরিস্থিতি। এই হল ধারাবাহিক ‘গুড্ডি’র গল্প। তিন চরিত্রতে বুঁদ দর্শক। কেউ শিরিন শিবিরে, কেউ আবার গুড্ডির শিবিরে।

Advertisement

দুই দলের মধ্যে বেজায় লড়াই। তাই তো এখন শিরিনকে রাস্তায় দেখলেও অনেকের বেশ রাগ হয়। সেই চরিত্রে দর্শক দেখছেন মধুরিমা বসাককে। আর গুড্ডি হলেন শ্যামৌপ্তি মুদলি এবং অনুজের চরিত্রে রণজয় বিষ্ণু। তিন জনে মিলেই এসেছিলেন ফেসবুক লাইভে। সেখানেই দর্শকের মন্তব্য অবাক হওয়ার মতো। শিরিনের উদ্দেশে কেউ লিখেছেন, “শিরিন ডাইনির মতো। ওকে এখনই এখান থেকে ছুড়ে ফেলে দেওয়া হোক।” দর্শকের কটু মন্তব্য কতটা প্রভাব ফেলে মধুরিমার মনে? আনন্দবাজার অনলাইনের তরফে যোগাযোগ করা হলে অভিনেত্রী বলেন, “আমি সহজাত ভাবেই সব মেনে নিই। কারণ আমার চরিত্রগুলো তৈরিই হয় ওই ভাবে। .আর পজ়িটিভ-নেগেটিভ একে অপরের পরিপূরক। মানুষ আমায় নিয়ে চর্চা করছেন , কটু মন্তব্য করছেন মানে আমি আমার কাজে সফল। তাঁরা তো আমার ব্যক্তিজীবন নিয়ে আলোচনা করছেন না। আমার কাজ নিয়ে করছেন। তার মানেই আমি ঠিক কাজ করছি।”

টেলি পাড়ায় এই মিষ্টি খলনায়িকাকে দেখতে অভ্যস্ত দর্শক। তাঁকে কিছু দিন আগে দর্শক দেখেছেন ‘X=প্রেম’ ছবিতে। এ ছাড়াও স্টুডিয়োপাড়ায় গুঞ্জন, খুব শিগগিরি একটি ওয়েব সিরিজ়েও দেখা যেতে পারে নায়িকাকে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.