×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৬ মে ২০২১ ই-পেপার

সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করতে পারেন রিয়া

নিজস্ব সংবাদদাতা
মুম্বই ১৯ অক্টোবর ২০২০ ১৪:৪৩
রিয়া চক্রবর্তী এবং অঙ্কিতা লোখণ্ডে।

রিয়া চক্রবর্তী এবং অঙ্কিতা লোখণ্ডে।

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতা লোখণ্ডের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করতে পারেন রিয়া চক্রবর্তী। জানা যাচ্ছে, অঙ্কিতার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করতে চলেছেন রিয়া।

সুশান্তের মৃত্যুর কিছুদিন পর থেকে অভিনেতার জন্য বিচার চেয়ে অঙ্কিতা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন ভিডিয়ো পোস্ট করতে থাকেন। শুধু তাই নয়, একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে অঙ্কিতা দাবি করেছিলেন সুশান্ত কখনওই মানসিক অবসাদে ভোগেননি। অভিনেত্রীর কথায়, সুশান্তকে তাঁর চেয়ে ভাল কেউ চেনেন না এবং তিনি নিশ্চিত ভাবে বলেছিলেন অবসাদের জেরে অভিনেতা কখনওই আত্মহত্যা করতে পারেন না। সম্পর্কে থাকাকালীন কোনওদিন সুশান্তের মধ্যে মানসিক অবসাদের কোনও লক্ষণ দেখেননি বলে দাবি করেছলেন অঙ্কিতা। নাম না করেও সুশান্তের মৃত্যুর জন্য রিয়াকেই কাঠগড়ায় তুলেছিলেন তিনি। পাশাপাশি, নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো রিয়াকে গ্রেফতার করার পরে অভিনেত্রীকে খোঁচা দিয়ে ‘সত্যমেব জয়তে’ লিখে ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করেন অঙ্কিতা।

সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই তাঁর পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। রিয়া একটি সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন সুশান্ত প্লেনে চড়তে ভয় পেতেন। তারপরেই অঙ্কিতা ইনস্টাগ্রামে সুশান্তের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে যেখানে অভিনেতাকে প্লেন ওড়াতে দেখা যাচ্ছে। অভিনেত্রী জানান, সুশান্ত বরাবরই এরোপ্লেন ওড়াতে চেয়েছিলেন। অর্থাৎ পরোক্ষ ভাবে রিয়ার দাবিকে নস্যাৎ করে দিতে চেয়েছিলেন সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকা। এ ভাবেই সোশ্যাল মিডিয়া এবং একাধিক সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে রিয়ার কড়া সমালোচনা করেন তিনি।

আরও পড়ুন: মেয়েরা কী দরজা যে ছেলেদের তাদের সামলাতে হবে: নুসরত

গত ৭ অক্টোবর বম্বে হাইকোর্ট রিয়ার জামিন মঞ্জুর করে। শোনা যাচ্ছে তাঁর সম্পর্কে যাঁরা ভুল তথ্য ছড়িয়েছে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করবেন অভিনেত্রী। ইতিমধ্যেই সংবাদমাধ্যমে মিথ্যা বয়ান দেওয়ায় এক প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে সিবিআইকে চিঠি লিখেছেন রিয়া। জেলে যাওয়ার আগে নিজের টি শার্টে পিতৃতন্ত্রকে ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়ার কথা লিখেছিলেন রিয়া। এ বার কি সেই পথেই হাঁটছেন তিনি?

Advertisement
Advertisement