• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রিয়ার চ্যাটে লেখা, ‘চার ফোঁটা দিলেই কিছু ক্ষণ পরে ওঁর নিশ্চিত নেশা’

Sushant Singh Rajput Rhea Chakraborty
এ বার মাদকের ব্যাপারেও নাম জুড়ল রিয়ার।

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু তদন্তে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।  ইডি-র সন্দেহ, রিয়া মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন। সেই সূত্র ধরেই সংবাদ মাধ্যম ‘টাইমস নাও’ রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট খুঁজতে গিয়ে দেখে, গত বছরের ২৫ নভেম্বর রিয়ার বন্ধু জয়া শাহ হোয়াটসঅ্যাপে রিয়াকে লেখেন, “চার ফোঁটা জলে বা চায়ে মিশিয়ে ওকে সিপ করাও… ৩০-৪০ মিনিট পরে মাতাল হবে (‘কিক’)।” রিয়া উত্তরে লেখেন, “ধন্যবাদ।” জয়ার উত্তর আসে, “কোনও অসুবিধে নেই। আশা করি এটা কাজ দেবে।”

উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, জয়া এবং রিয়া ১০০ বার ফোনে কথা বলেছেন, যার মধ্যে ২৯টি কল জয়া করেছিলেন এবং বাকি কলগুলি করেছিলেন রিয়া। সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পরে রিয়ার প্রথম কলটি ছিল জয়া শাহকে। সুশান্তের মৃত্যুর খবর দুপুর ২.২৭ মিনিটে আসে এবং ২.৩৩ মিনিটে রিয়া ও জয়ার মধ্যে কথা হয়।

ইতিমধ্যেই ইডি জয়া শাহকে প্রায় চার ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। তাঁর হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এখান থেকে রিয়ার জন্য তৈরি হল আরও প্রশ্ন। রিয়াই কি চেয়েছিলেন সুশান্ত ড্রাগের নেশা করুক? চাইলে কেন?

আরও পড়ুন: গাঁজা ছাড়ার চেষ্টা করেছিলেন সুশান্ত, জানাল রিয়া-শ্রুতির হোয়াটস্‌অ্যাপ চ্যাট​

আরও পড়ুন: কোনও ছেলে এমন ‘পুরুষালি’ ভাবে সিঁদুর পরালে কোনও মেয়ে চুপ থাকতে পারে: স্বস্তিকা​

একটি ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট সংস্থায় কাজ করেন জয়া শাহ। ফলে অনেক স্টারের সঙ্গে সখ্য রয়েছে তাঁর। জয়া ও রিয়ার বন্ধুত্ব ছিল। অভিযোগ উঠেছে, রিয়াকে মাদক সরবরাহ করতেন জয়া শাহ। এখন মাদকের মামলাটি সামনে আসার পর নারকোটিক্স ডিপার্টমেন্ট সিবিআইয়ের সঙ্গে তদন্ত করবে। এখনও পর্যন্ত রিয়ার বিরুদ্ধে শুধু টাকা তছরুপের অভিযোগ ছিল। এ বার মাদকের ব্যাপারেও সুশান্তের বান্ধবীর নাম জুড়ল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন