×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৩ মে ২০২১ ই-পেপার

বিরুষ্কার মতো দ্বিতীয় সন্তানকে পাপারাৎজিদের আড়ালে রাখবেন, সিদ্ধান্ত সইফিনার

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ১৫:৪৬
কিছুদিন আগেও তৈমুরকে নিয়ে এভাবেই লেন্সবন্দি হতেন সইফিনা।

কিছুদিন আগেও তৈমুরকে নিয়ে এভাবেই লেন্সবন্দি হতেন সইফিনা।
ইনস্টাগ্রাম

চাইলে কী না হয়! ক্যামেরা আর ছবিশিকারিদের দৌরাত্ম্য থেকে যে সেলেব সন্তানদের দূরে রাখা যায়, তা বুঝিয়ে দিয়েছেন নতুন তারকা বাবা-মা বিরাট কোহালি আর অনুষ্কা শর্মা। তৈমুরের সময় সইফিনা যা পারেননি, বা করেননি, সেটাই সফল ভাবে করে দেখিয়েছেন তাঁরা। আলোক বৃত্তের সম্পূর্ণ বাইরে রেখেছেন সন্তানকে। মেয়ের সঙ্গে নতুন বাবা-মা বিরুষ্কার সময় কেমন কাটছে, এখনও কেউ জানে না। আর বিরুষ্কার এই ব্যাক্তিগত পরিসরকে সম্মান জানানোর শিক্ষাতেই শিক্ষিত হতে চাইছেন দেশের আরেক তারকা বাবা-মা সইফ আলি খান আর করিনা কপূর।

খুব শিগগিরই দ্বিতীয় সন্তানের বাবা-মা হতে চলেছেন বলিউডের এই তারকা জুটি। তবে এবার তৈমূরের সময়ে হওয়া ভুল শুধরে নেওয়াই একমাত্র লক্ষ্য সইফিনার।

গত ১১ জানুয়ারি মেয়ে হওয়ার খবর দিয়েছিলেন বিরাট কোহালি। তারপর এক সপ্তাহ কেটে গিয়েছে। এখনও বিরুষ্কার কন্যার ছবি দেখেননি কেউ। ছবি শিকারিরা তো বটেই, মেয়ের ব্যাক্তিগত পরিসরে যাতে কোনও অবাঞ্ছিত অনুপ্রবেশ না হয়, তার জন্য ঘনিষ্ঠ বন্ধুদেরও বাড়িতে না আসার অনুরোধ জানিয়েছেন বিরাট অনুষ্কা। উপহার দিয়ে ছবি না তোলার অনুরোধ করেছেন আলোকচিত্রী। তারা যে আর পাঁচজনের মতোই সাধারণ মানুষ, অনুরোধ করলে অনুরোধ রাখবেন, সেলেবদের ব্যাক্তিগত বিষয়কে সম্মান জানাবেন, সেটাও বেশ স্পষ্ট করেই বুঝিয়ে দিয়েছেন বিরুষ্কা।

Advertisement

সইফ করিনার ঘনিষ্ঠ সূত্রে পাওয়া খবর, বিরুষ্কার এই পদক্ষেপ ভাল লেগেছে সইফিনার। তাই তাঁরা ঠিক করেছেন, দ্বিতীয় সন্তানের ব্যাপারে গোপনীয়তা বজায় রাখতে যা যা করার দরকার তা-ই করবেন তাঁরা।


আসলে তৈমূরের ছবি তুলতে প্রথম দিন থেকেই ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন ছবি শিকারিরা। জনপ্রিয়তার জোরে একটা সময়ে তৈমুরের মতো দেখতে পুতুল বানানোও শুরু করেছিল দেশের খেলনা প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলো। প্রথম প্রথম এই উৎসাহ ভাল লাগলেও পরের দিকে বিষয়টি পৌঁছে যায় বিড়ম্বনার পর্যায়ে। দ্বিতীয় সন্তানের ক্ষেত্রে তা-ই তেমন কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছেন না সইফিনা।

তাহলে কি ঠেকে শিখলেন সইফিনা! অবশেষে বোধোদয় হল তাঁদের?

বলিউডের অনেকেই ব্যাপারটাকে স্রেফ বোধোদয় বলে মানতে নারাজ। এক বড় প্রযোজক তো বলেই ফেললেন, যা-ই বলুন, বিরাট কোহালি হলেন বলিউডের যে কোনও বড় তারকার থেকেও বড় সুপারস্টার। তিনি যা করবেন, বাকিরা তো তা অনুসরণ করবেনই।

অর্থাৎ আড়ালে থেকেও বিরুষ্কার কন্যা আলোক বৃত্ত ছিনিয়েই নিলেন তৈমুরের থেকে।



Advertisement