×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

রাধের লক্ষ্মীলাভ

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৭ মে ২০২১ ০৭:৩৫
সলমন খান।

সলমন খান।

দর্শকের জন্য সলমন খানের ইদের উপহার ‘রাধে’র বিদেশের কালেকশনের অঙ্ক বলে দিচ্ছে, আন্তর্জাতিক বাজারে ছবি রিলিজ় করে খুব ভুল করেননি ভাইজান। গত ১৩ মে ওটিটি-তে পে পার ভিউ মাধ্যমে এবং দেশের বাইরে সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে সলমনের বহু প্রতীক্ষিত এই ছবি। প্রথম সপ্তাহান্তের পরে ছবির মোট বক্স অফিস কালেকশন ১৮৩ কোটির কাছাকাছি। মনে করা হচ্ছে, প্রথম সপ্তাহের শেষে তা আড়াই কোটি ছাড়িয়ে যেতে পারে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজ়িল্যান্ড, সংযুক্ত আরবের মতো দেশে ‘রাধে’র বক্স অফিসে লক্ষ্মীলাভ হয়েছে ভালই। তা ছাড়া রয়েছে জ়িপ্লেক্স থেকে প্রাপ্ত লাভের অঙ্ক। মুক্তির দিনে প্রায় দশ লক্ষেরও বেশি ইউজ়ার একসঙ্গে জ়িফাইভে লগ ইন করার চেষ্টা করলে ক্র্যাশ করে সার্ভার, যা পরে ঠিক করা হয়। সংস্থার তরফে ক্ষমাও চেয়ে নেওয়া হয় দর্শকের কাছে। প্রথম দিনেই ৪.২ মিলিয়ন ভিউজ়ের রেকর্ড গড়েছিল ‘রাধে’। ছবিমুক্তির আগে সাংবাদিক বৈঠকে সলমন বলেছিলেন, ‘রাধে’র বক্স অফিস নিয়ে কোনও প্রত্যাশাই রাখছেন না তাঁরা। শূন্য হাতে ফিরতে হবে জেনেও ছবি রিলিজ় করাচ্ছেন। তবে অতিমারি পরিস্থিতিতে প্রথম দিনের সাড়া পেয়ে উচ্ছ্বসিত নায়ক টুইটারে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন ভক্তদের।

অতিমারির সময়ে মুক্তি পাওয়া এই ছবির যাত্রা শুধুই মসৃণ নয়। ওটিটি-র পর্দায় বা দেশের বাইরের প্রেক্ষাগৃহে সলমনের ছবি দেখতে লোকসমাগম হলেও তা দর্শক-সমালোচক মহলে প্রশংসা অর্জনে ততটা সফল নয়। বলিউড ছবির নামী ওয়েবসাইট কিংবা ট্রেড অ্যানালিস্টরা বেশ কম রেটিং দিয়েছেন সলমনের ছবিকে। প্রভু দেবা নির্দেশিত ‘রাধে’তে সলমন ও খলনায়ক রণদীপ হুডার ধুন্ধুমার অ্যাকশনও টেনে নিয়ে যেতে ব্যর্থ ছবিকে। বরং তা নিয়ে তৈরি অজস্র মিমে ভরে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। এ বারেও কিছু সাইটে ছবির পাইরেটেড ভার্শন এসে গিয়েছিল মুক্তির পরপরই। সলমন তাঁর ভক্তদের সতর্কও করেছেন সে ব্যাপারে। আপাতত ইদের উৎসবের রেশ আর অতিমারির চোখরাঙানির মাঝেই যাত্রা অব্যাহত ‘রাধে’র।

Advertisement
Advertisement