সঞ্জয় দত্তকে ‘জোচ্চর’ বললেন রণবীর। হ্যাঁ, আপনি ঠিকই পড়ছেন। সঞ্জয় দত্তের চরিত্র নিয়ে এমনই মন্তব্য করেছেন বলিউডের কপূর পরিবারের রাজপুত্র রণবীর কপূর।

আরও পড়ুন, ঐশ্বর্যাকে রিফিউজ করলেন এক অভিনেতা!

আসল ঘটনাটা কী?
‘বরফি’ দেখার পর অনেকেই বলেছিলেন, বলিউডের আগামী সুপারস্টার রণবীর কপূর। কিন্তু তার পর তাঁর বেশ কয়েকটা ছবিই পর পর ফ্লপ। নিজের প্রযোজনার প্রথম ছবি সাধের ‘জগ্গা জসুস’ও বক্স অফিসে জমেনি। কেরিয়ারের এই পরিস্থিতিতে পৌঁছে রণবীর এ বার বাড়তি অক্সিজেন জোগাতে উঠে-পড়ে লেগেছেন। সেখানে অস্ত্র হতে পারে সঞ্জয় দত্তের বায়োপিক। কপূর খানদানের এই বংশধর তাই রাজকুমার হিরানির আগামী ছবির জন্য নিজেকে যাকে বলে উজাড় করে দিচ্ছেন। সঞ্জয়ের ভূমিকায় তাঁর শক্তিশালী চেহারা আর টোনড মাসল দেখলে কে বলবে, এই সে দিনও তিনি ছিপছিপে কলেজ পড়ুয়ার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

সঞ্জয় দত্তের বায়োপিকের জন্যই এমন চেহারা তৈরি করেছেন রণবীর। ছবি: রণবীরের জিম ইনস্ট্রাকটর কুণাল গিরের টুইটার পেজের সৌজন্যে।

ডিএনএ-র খবর অনুযায়ী সেই রণবীরই ‘ডেকান ক্রনিকল’কে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘‘সঞ্জয় নিজের জীবন সম্পর্কে খুব সৎ। আমরা তাঁকে কোনও গাঁধীর মতো চরিত্র দেখানোর চেষ্টা করছি না। আমরা এক জন বিরাট জোচ্চরকে তুলে ধরছি। সঞ্জয় এমন এক জন ব্যক্তি, যাকে একইসঙ্গে ভালবাসা যায় আবার অপছন্দও করা যায়।’’ রণবীরের কথায়, সঞ্জয়ই নাকি সব চাইতে বিতর্কিত এবং একইসঙ্গে সাহসী। 

আরও পড়ুন, এ বার গ্রেফতার করা হবে রাখি সাবন্তকে!

হ্যাঁ, বায়োপিক করতে হলে তো নিজের জীবনের খুঁটিনাটি বলতে হবেই। পাশাপাশি, সব কথা বলে ফেলার সাহসও রাখতে হবে। কিন্তু তা বলে এ ভাবে জনসমক্ষে সঞ্জয় দত্তকে ‘জোচ্চর’?
ফ্যানেরা কিন্তু বলছেন, ‘জোচ্চর’ না বলে বরং অন্য কোনও বিশেষণ ব্যবহার করেও রণবীর এ কথা বলতে পারতেন! 
সঞ্জয় দত্তের এই বায়োপিকে সুনীল দত্তের ভূমিকায় দেখা যাবে পরেশ রাওয়ালকে। সঞ্জয়ের স্ত্রী মান্যতার ভূমিকায় রয়েছেন দিয়া মির্জা। মনীশা কৈরালা সঞ্জয়ের মা নার্গিসের চরিত্রে রয়েছেন। আগামী বছর ৩০ মার্চ ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা।