Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২৩
sonu nigam

‘এটা মুম্বই? আমি আতঙ্কিত, বিরক্ত’! সোনুর উপর হামলার ঘটনায় ‘উচিত শিক্ষা’র দাবি শানের

নিজে এক জন শিল্পী হয়ে আর এক শিল্পীর অবমাননা মেনে নিতে পারছেন না শান। হিংসা এবং অব্যবস্থার অভিযোগ জানিয়ে জনমত গঠন করেছেন গায়করা। তাতে রয়েছেন শানও।

সোনুর বন্ধু হয়ে শান চান, দুর্বৃত্তদের উচিত শিক্ষা দেওয়া হোক।

সোনুর বন্ধু হয়ে শান চান, দুর্বৃত্তদের উচিত শিক্ষা দেওয়া হোক। ফাইল চিত্র

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১২:৫৭
Share: Save:

সোনু নিগমের উপর হামলার ঘটনায় স্তম্ভিত শান। বলিউডে সোনুর সমসাময়িক জনপ্রিয় গায়ক তিনি। একই সিনেমার কত গানে সোনুর সঙ্গে গলা মিলিয়েছেন। শুধু সতীর্থ নন, সোনু আর শানের বন্ধুত্বও গাঢ়। মুম্বইয়ের বুকেই সোনুর অনুষ্ঠানের দিন যা হয়েছে, তার তীব্র প্রতিবাদে বললেন, “আতঙ্কিত এবং বিরক্ত বোধ করছি! অপরাধীদের উচিত শিক্ষা হোক।”

নিজস্বী তোলা নিয়ে অশান্তি। চেম্বুরে গাইতে গিয়ে সোনু নিগমের উপর চড়াও হয়েছিলেন সেখানকার বিধায়ক প্রকাশ ফাটরেপেকরের ছেলে। গায়কের অভিযোগ, বিধায়কের ছেলে তাঁর চুল ধরে টানেন, তাঁর নিরাপত্তারক্ষী, ম্যানেজারকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। এমনকি, তাঁর সঙ্গে অভব্য আচরণ করেন।

সোমবারের সেই ঘটনার নিন্দা করে ভারতীয় গায়করা সরব হন। হিংসা এবং অব্যবস্থার অভিযোগ জানিয়ে সবাই মিলে স্বাক্ষর দেন। তাতে রয়েছেন শানও। তিনি বলেন, “যে মুম্বইকে এত দিন নিরাপত্তা এবং আইনি শৃঙ্খলার দিক দিয়ে সেরা বলে জানতাম, সেখানেই এই ঘটনা ঘটল, আমি বিশ্বাস করতে পারছি না! এটা সেই চেনা মুম্বই??”

নিজে এক জন শিল্পী হয়ে আর এক শিল্পীর অবমাননা মেনে নিতে পারছেন না শান। বললেন, “ইন্ডাস্ট্রির এক জন হয়ে বলছি, সোনুর ভক্ত হয়ে বলছি, এর একটা বিহিত হোক। যে হিংসা, অব্যবস্থার নজির তৈরি হয়েছে তার জন্য দায়ী দুর্বৃত্তদের উচিত শিক্ষা দেওয়া হোক।’’

ইতিমধ্যেই বিধায়কের ছেলে স্বপ্নিল প্রকাশ ফাটরেপেকরের বিরুদ্ধে চেম্বুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন সোনু। এই ঘটনার ভিডিয়ো নিমেষে ছড়িয়ে পড়ে সমাজমাধ্যমে। পরের দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার সকালেই মুম্বই ছাড়েন সোনু। অন্য দিকে, ছেলের হয়ে গায়কের কাছে ক্ষমা চান বিধায়ক এবং তাঁর কন্যা।

অভিযুক্তের বাবা শিবসেনা বিধায়ক প্রকাশ ফাটরেপেকরের বলেন, ‘‘পুরো ঘটনাটাই অনিচ্ছাকৃত। ও কাউকে ধাক্কা দিতে চায়নি। শিল্পী মঞ্চ থেকে নেমে যাওয়ার সময় নিজস্বী নিতে গিয়েছিল। যা হয়েছে খুবই দুঃখজনক। ছেলে হিসেবে খুবই নম্র, শান্ত। আমি ক্ষমা চাইছি, গোটা ঘটনায় অনুতপ্ত।’’

সোমবার রাতেই সোনু নিগমের অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৩ ধারা (স্বেচ্ছায় আঘাত করার জন্য শাস্তি), ৩৪১ ধারা (অন্যায় ভাবে গতিরোধ করা), এবং ৩৩৭ (ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বিপন্ন করে এমন কাজ করা)— এই তিনটির ধারার অধীনে মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE