×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৩ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন কঙ্গনার প্রাক্তন প্রেমিক অধ্যয়ন!

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৮ জুন ২০২০ ১৫:৪৯
বাঁ দিক থেকে শেখর, অধ্যয়ন এবং কঙ্গনা।

বাঁ দিক থেকে শেখর, অধ্যয়ন এবং কঙ্গনা।

সুশান্তের আত্মহত্যা নাড়িয়ে দিয়েছে বলিউডকে। ‘আউটসাইডার'রা একে একে সরব হচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এ বার ছেলে অধ্যয়ন সুমন প্রসঙ্গে বিস্ফোরক অভিনেতা শেখর সুমন। তাঁর আঙুল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির দিকেই।

এক সাক্ষাৎকারে শেখর বলেন,‘‘সুশান্ত আমার ছেলের মতো। ওর বাবার এখন কী অবস্থা তা বেশ ভালই আন্দাজ করতে পারছি আমি। আমি নিজেও যে একজন বাবা। আমার ছেলে অধ্যয়নও মানসিক অবসাদের শিকার হয়েছে একটা দীর্ঘ সময়। সুশান্তের মতো অধ্যয়নও একই অবস্থার মধ্যে দিয়ে গিয়েছে। এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁকেও মুখোমুখি হতে হয়েছে নানা সমস্যার’’..

শুধু তাই নয়, মাঝে মাঝেই আত্মহত্যার চিন্তা মাথায় আসত ছেলের, তাও জানিয়েছেন শেখর। একটা সময় ভয় পেয়েছিলেন তিনি। ছেলেকে বাড়িতে কখনও একা ছাড়তেন না। কেউ না কেউ সবসময় সঙ্গেই থাকত অধ্যয়নের সঙ্গে। তাঁর কথায়,‘‘অধ্যয়নের ঘর থেকে একটু বেশি সময় কোনও আওয়াজ শুনতে না পেলেই ভয়ে কাঠ হয়ে যেতাম আমি। উঁকি দিয়ে দেখতাম কী করছে ও। এমনও হয়েছে ভোর ৪টে-৫টা নাগাদ ওর ঘরে গিয়ে দেখছি সিলিংয়ের দিকে তাকিয়ে জেগে রয়েছে’’।

আরও পড়ুন: যে আশাকে স্বামী ঘাড়ধাক্কা দিয়ে তাড়িয়েছিলেন, রাহুল তাঁকেই গ্রহণ করেছিলেন পরম আদরে

বাবা-মা সহ পরিবারের সব্বাইকে সে সময় পাশে পেয়েছিলেন অধ্যয়ন। আর অধ্যয়নও সব ভুলে, সব অবসাদ দূরে রেখে আবার নতুন করে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন। কুমার মঙ্গতের ছবি 'হাল এ দিল' দিয়ে বলিউডি অভিষেক ঘটে তাঁর। কেরিয়ারে সব চেয়ে হিট ছবি ২০০৯-এ মুক্তি পাওয়া ছবি ‘রাজ, দ্য মিস্ট্রি কন্টিনিউস’। বিপরীতে ছিলেন কঙ্গনা রানাউত। এই সময় থেকেই কঙ্গনার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাঁর। তবে সেই প্রেম শেষ হয় তিক্ততার মধ্যে দিয়ে। প্রেম ভাঙার পর কঙ্গনার বিরুদ্ধে শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। যদিও বাবা শেখর সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন, কঙ্গনার কোনও দোষ নেই। তাঁর ছেলেই ভুল সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। তা নিয়ে দু'পক্ষ থেকেই বিস্তর কাদা ছোড়াছুড়ি হয়েছিল সে সময়। এমনকি হৃতিক-কঙ্গনা তরজায় সরাসরি হৃতিকের পক্ষ নিয়ে অধ্যয়ন বলেছিলেন, তিনি বুঝতে পারছেন কী অবস্থার মধ্যে দিয়ে হৃতিককে যেতে হচ্ছে। কারণ, তিনি নিজেই ভুক্তভোগী। যদিও নেটাগরিকদের একটা বড় অংশ ট্রোল করেছিল অধ্যয়নকেই। অভিমানী অভিনেতা টুইটারে লিখেছিলেন, "কেরিয়ারে ব্যর্থ হয়ে যাওয়া একজন পুরুষের যে নিজের #মিটু ঘটনার কথা স্বীকার করতে নেই তা সবাই আমাকে বুঝিয়ে দিয়েছিল।’’

তবে এখন সে সব অতীত। দু'জনেই 'মুভ অন' করে গিয়েছেন অনেক বছর। বর্তমানে মায়েরা মিশ্রর সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন অধ্যয়ন।

Advertisement



Advertisement