ভারতীয় সিনেমা নিয়ে মহা ধুমধামের সঙ্গে শুরু হল‘ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভাল অব মেলবোর্ন’। বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ১০ বছরে পড়া ওই উৎসবের সূচনায় হাজির ছিলেন বলিউডের এক ঝাঁক তারকা। শাহরুখ খান, তব্বু থেকে কর্ণ জোহর— সকলের উপস্থিতিতে গোটা উৎসব একেবারে চাঁদের হাটের চেহারা নেয়।

উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, এই চলচ্চিত্র উৎসব চলবে আগামী ১৫ অগস্ট পর্যন্ত। ৬০টি হিন্দি ছবির পাশাপাশি ওই উৎসবে দেখানো হবে ২২টি আঞ্চলিক ভাষার ছবিও। সূচনা অনুষ্ঠানেপ্রধান অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছিলেন শাহরুখ। মেলবোর্নে এসে কিং খান কিছুটা স্মৃতিমেদুর হয়ে পড়েন। তাঁকে বলতে শোনা যায়, “সেটা ২০০৬-০৭ সাল। তখন আমি উঠতি সুপারস্টার। একের পর এক হিট উপহার দিচ্ছি দর্শকদের। সেই সময় মেলবোর্ন এসেছিলাম। এত বছর পর আবার আমি এখানে।”এরপরেই স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিমায় মুচকি হেসে বাজিগর বলেন, “এখনও আমি উঠতি সুপারস্টার। তবে ফারাকটা হল, সে এখন আর হিট ছবি দিতে পারছে না।”

শাহরুখ অভিনীত ‘চাক দে ইন্ডিয়া’ ছবির শুটিং হয়েছিল মেলবোর্নে। সেটা ২০০৭। সেই সময়কার কথা মনে করিয়ে ৫৩ বছরের কিং খান বলেন, “আমরা ফিল্মের সেটে অনেক মজার খেলা খেলতাম। যেখানেই যাই না কেন,আসলে গোটা পৃথিবীতে এত ভারতীয়, যে কারণে বলিউডও ক্রমশ স্থান,কাল,সীমানার গণ্ডি পেরিয়েছড়িয়ে পড়েছে দুনিয়ার নানা প্রান্তে।” তাঁকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য উৎসবেরকর্ণধার মিতু ভৌমিক ল্যাঙ্গেকে ধন্যবাদও জানান শাহরুখ।

আরও পড়ুন:কাজের জন্য রাজের প্যাশনটা এখন কাছ থেকে দেখতে পাই: শুভশ্রী

আরও পড়ুন: জাহ্নবীর বেলি ডান্স ঝড় তুলল নেটদুনিয়ায়!

শাহরুখ-কর্ণের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন তব্বু, অর্জুন কপূর ছাড়াও পরিচালক জোয়া আখতার এবং শ্রীরাম রাঘবন।

কর্ণ জোহরের উপস্থিতিও ওই সূচনা অনুষ্ঠানের গ্ল্যামার বাড়িয়ে দিয়েছিল। শাহরুখের সঙ্গে তাঁর খুনসুঁটি, মজার মজার কথা মন কেড়েছে দর্শকদের। কর্ণকে বলতে শোনা যায়, “শাহরুখ সম্পর্কে নতুন করে কী বা বলব! ও আর স্টারডম তো সমার্থক। শুধুমাত্র স্ক্রিন প্রেজেন্সের জন্যই শাহরুখ অনবদ্য, এমনটা নয়। ওর অসাধারণ অভিনয় দক্ষতা, ক্যারিশমা যে কাউকেই হার মানাবে।”