Advertisement
০৪ ডিসেম্বর ২০২২
Tota Roychoudhury

Tota Roychowdhury: অভিনয় দুনিয়ায় প্রচুর ‘কেস’ খেয়েছি! সবাই পরে ক্ষমা চেয়েছেন: টোটা

‘কিচ্ছু খাইনি আমি আজীবন কেস খাওয়া ছাড়া! আমিও তাদেরই দলে, দোষ না করেও ফেঁসে যায় যারা’ বিস্ফোরক পর্দার ‘রোহিত সেন’।

 টোটা রায়চৌধুরী।

টোটা রায়চৌধুরী।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০২১ ১৫:৪০
Share: Save:

এ বার টোটা রায়চৌধুরী। আবার কালো টিশার্ট। এ বার তাতে বিস্ফোরক বাণী, ‘কিচ্ছু খাইনি আমি আজীবন কেস খাওয়া ছাড়া! আমিও তাদেরই দলে, দোষ না করেও ফেঁসে যায় যারা...’ পর্দার ‘রোহিত সেন’ বাস্তবে কেস খেয়েছেন নাকি? কবে খেলেন?

শুনেই প্রথমে অট্টহাসি। গোয়া থেকে ফোনে আনন্দবাজার অনলাইনকে তিনি বললেন, ‘কেস’ খেয়েই নাকি তিনি ছোট থেকে বড় হয়েছেন! বক্তব্যের ব্যাখ্যাও করেছেন, এ অঘটন তাঁর জীবনের একার নয়। আম-বাঙালির গপ্পো। তাকেই তিনি তুলে ধরেছেন তাঁর টি-শার্টে। নিজের সম্বন্ধে এও জানিয়েছেন, স্কুল জীবন থেকে নাকি তিনি প্রথম ফেঁসেছেন! বড় বেলাতেও অন্যথা হয়নি। ‘কেস’ খাওয়ার গল্পগুলো ভোলেননি তিনিও। তবে পেশার জগতে বা অভিনয় দুনিয়ার যাঁরা তাঁকে ‘কেস’ খাইয়েছেন তাঁরা পরে ভুল বুঝতে পেরেছেন। তাঁর কাছে এসে ক্ষমাও চেয়েছেন জোড় হাতে। টোটার কথায়, ‘‘আমিও নিজ গুণে সবাইকে ক্ষমা করে দিয়েছি।’’

কেমন ‘কেস’ খেয়েছেন টোটা? ‘‘প্রেম-ভালবাসার দিক থেকে কখনও ফাঁসিনি। তবে কার্শিয়াঙে স্কুল জীবনে এক বার জোরদার মিথ্যে দোষারোপের ভাগীদার হয়েছিলাম।’’ টোটার স্কুলের বন্ধুরা দুই দলে ভাগ হয়ে ফুটবল খেলছিল। খেলতে খেলতে বচসা, মারপিট। শেষে অভিনেতার হস্তক্ষেপে সবাই রণে ভঙ্গ দেয়। পরের দিন স্কুলে গিয়ে বকুনি তাঁর কপালেই জুটেছিল। অধ্যক্ষের কাছে নালিশ গিয়েছিল, পর্দার ‘বিহারী’ নাকি ঝগড়া থামাননি, ঝগড়া বাঁধিয়েছিলেন দুই পক্ষের মধ্যে!

Advertisement

এ দিকে ধারাবাহিক ‘শ্রীময়ী’-র দর্শকরা যে ‘কেস’ দিচ্ছেন রোহিত সেনকে! তাঁদের ক্ষোভ, নায়িকা রোহিতকে উদ্ধার করবেন বলে বন্দুক চালানো শিখছেন। আর রোহিত গোয়ায় ‘চিল’ করছেন? টোটাও নাকি শুনেছেন এই ধরনের কথা। বলেছেন, ‘‘আমার কাছেও সবাই জানতে চেয়েছেন, আপনার এমন কী হয়েছে যে নায়িকাকে বন্দুক ধরতে হচ্ছে?’’ অভিনেতার দাবি, এই উত্তর একমাত্র জানেন লেখক লীনা গঙ্গোপাধ্যায়।

গোয়ায় টোটা এক ঢিলে অনেকগুলো পাখি মারছেন। আপাতত পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটাচ্ছেন। এর পরে গোয়া আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে যোগ দেওয়ার ইচ্ছে তাঁর। সেখান থেকেই তিনি ব্যস্ত হয়ে পড়বেন কর্ণের ছবির শ্যুটে। গোয়ার কিছু জায়গায় শ্যুট হবে পরিচালকের ছবির।

বলিউড কি এ বার পাকা আস্তানা হয়ে উঠছে অভিনেতার? রোহিতের দাবি, বাংলার মতো বলিউডেও তিনি বেছেই কাজ করবেন। ফলে, স্থায়ী বসতি গড়ার কোনও ইচ্ছেই নেই তাঁর। সব ঠিক থাকলে হিন্দি ছবির শ্যুট শেষ হবে ফেব্রুয়ারিতে। তার পর হয়তো শুরু হবে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় হইচই প্ল্যাটফর্মের ফেলুদা সিরিজের কাজ। আশা করছেন, এর পাশাপাশি তাঁর ‘রোহিত সেন’ অবতারও থাকবে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.