×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

‘ঋত্বিকদাই সবচেয়ে প্রিয়’, জন্মদিনে অকপট তুহিনা

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১১ মার্চ ২০২১ ২১:৫৭
ঋত্বিক চক্রবর্তী এবং তুহিনা দাস।

ঋত্বিক চক্রবর্তী এবং তুহিনা দাস।

দেখতে ভাল? ‘‘আবিরদা। নানা, সকলেই দেখতে ভাল। কিন্তু আবিরদা যেন একটু বেশিই। ভীষণ মার্জিত মনে হয়।’’ আর কার অভিনয় ভাল লাগে? ‘‘ঋত্বিকদা। বড্ড ভাল লাগে মানুষটাকে।’’ বাংলা ছবি ও সিরিজের মহিলা-গোয়েন্দা দময়ন্তী, থুড়ি তুহিনা দাসের টলিউড ‘ক্রাশ’ অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী-ই। জন্মদিনে অকপটে স্বীকার করলেন অভিনেত্রী। আনন্দবাজার ডিজিটালের সঙ্গে তাঁর ভাল লাগা, মন্দ লাগা নিয়ে এ ভাবেই গল্পে মাতলেন তুহিনা। জানালেন, ‘ক্রাশ’-এর সঙ্গে পর্দায় প্রেম করার সুযোগও এসেছিল। কিন্তু করোনা ‘কবাব মে হাড্ডি’ হয়ে দেখা দিল। সে ইচ্ছা কবে যে বাস্তব রূপ নেবে, তারই অপেক্ষায় এখন তিনি। ঋত্বিকের হাঁটাচলা থেকে কথা বলার ভঙ্গি, সবই যে ভাল লাগে এই টলি-নায়িকার। জানালেন, প্রিয় অভিনেতার সঙ্গে আলাপ হওয়ার পরে বুঝেছিলেন, মানুষ হিসেবেও তিনি বেশ আকর্ষণীয়।

মফস্‌সলের মেয়ে তুহিনা। নিজের পায়ে দাঁড়ানোর স্বপ্ন নিয়ে টলিউডে প্রবেশ। খুব কম সময়ের মধ্যেই জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের তালিকাতেও চলে এসেছে তাঁর নাম। তাই তাঁর কাকে ভাল লাগে, তা জানতে উত্তেজনা রয়েছে নানা মহলেই।

কাজ তো হল। কিন্তু প্রেম নিয়ে কী ভাবছেন অভিনেত্রী? প্রেমকে বাধা দিতে চান না তুহিনা। তবে ঠিক মানুষের অপেক্ষায় রয়েছেন। এমন কাউকে চাই, যিনি তাঁকে না জেনে বিচার করবেন না। আর বিয়ে? অভিনেত্রীর কথায়, ‘‘বাড়ি থেকে বিয়ে নিয়ে জোর দেওয়া হয়নি কোনও দিন। আমার ভাল থাকার দায়িত্ব আমার কাঁধেই সঁপেছেন বাবা-মা। যদি মনে হয় ঠিক মানুষের সন্ধান পেয়েছি, তবে নিশ্চয়ই করব। বিয়ের পরিপন্থী নই আমি।’’

Advertisement

পাশাপাশি তিনি এও জানালেন, বিয়ে নিয়ে বাধ্যবাধকতা নেই। প্রয়োজন বোধ না করলে বিয়ে করবেন না। একাই থাকবেন। সে রকম পরিস্থিতি তৈরি হলে সমাজকে জবাব দেওয়ার জন্যেও প্রস্তুত ‘দময়ন্তী’।

Advertisement