Advertisement
১৮ জুন ২০২৪
Ashima Mukherjee death

বাংলা সঙ্গীত ‘বড় একা’, হৃদ্‌রোগে প্রয়াত ‘চৌরঙ্গী’র সুরকার অসীমা মুখোপাধ্যায়

দীর্ঘ দিন ধরে বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন অসীমা মুখোপাধ্যায়। ‘চৌরঙ্গী’ ছবিতে তাঁর সুরে ‘বড় একা লাগে’ গানটি গেয়েছিলেন মান্না দে।

Veteran Bengali producer and music director Ashima Mukherjee passes away

অসীমা মুখোপাধ্যায়। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৩:০৩
Share: Save:

প্রয়াত হলেন বাংলা চলচ্চিত্র প্রযোজক এবং সুরকার অসীমা মুখোপাধ্যায়। মঙ্গলবার ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ নিজের বাসভবনে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। পরিবার সূত্রে খবর, দীর্ঘ দিন অসীমা বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। চিকিৎসক জানিয়েছেন, হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্য হয়েছে শিল্পীর।

‘চৌরঙ্গী’ ছবিতে অসীমার সুরে এবং মান্না দের কণ্ঠে ‘বড় একা লাগে এই আঁধারে’ গানটি আজও বাঙালি মনে রেখেছেন। অসীমার অন্য পরিচয়, তিনি অভিনেতা পার্থ মুখোপাধ্যায়ের স্ত্রী। একাধিক সফল ছবি প্রযোজনা করেছিলেন অসীমা। ‘চৌরঙ্গী’ ছাড়াও তার মধ্যে ‘মেমসাহেব’, ‘বাঘবন্দী খেলা’ অন্যতম। তাঁর সুরে গান গেয়েছেন মান্না দে, হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, শ্যামল মিত্র, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, আরতি মুখোপাধ্যায়, হৈমন্তী শুক্ল প্রমুখ। দীর্ঘ দিন কলকাতা এবং জামশেদপুর আকাশবাণীতে সহ-অধিকর্তা হিসাবে কর্মরত ছিলেন অসীমা। সঙ্গীত পরিচালনার পাশাপাশি গায়িকা হিসেবেও সুনাম অর্জন করেছিলেন। একাধিক ছবিতে হেমন্ত মুখোপাধ্যায় ও মান্না দের সঙ্গে ডুয়েট গেয়েছিলেন তিনি। বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রের ‘মহিষাসুরমর্দিনী’ অনুষ্ঠানে আরতি মুখোপাধ্যায় ও শ্যামল মিত্রের সঙ্গে তাঁর গাওয়া ‘শুভ্র শঙ্খরবে’ গানটি আজও শ্রোতারা মনে রেখেছেন।

অসীমার প্রয়াণে শোকবার্তা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লেখেন, ‘‘বিশিষ্ট সঙ্গীতশিল্পী ও সুরকার অসীমা মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। অসীমা মুখোপাধ্যায় বহু জনপ্রিয় গানের সুরারোপও করেছিলেন। পশ্চিমবঙ্গ সরকার ২০২০ সালে তাঁকে ‘সঙ্গীত মহাসম্মান’ প্রদান করে। অসীমা মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে সঙ্গীত জগতের অপূরণীয় ক্ষতি হল। আমি তাঁর আত্মীয়-পরিজন ও অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।’’

‘চৌরঙ্গী’ ছবির অভিনেত্রী অঞ্জনা ভৌমিক ১৭ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত হন। তার পর অসীমার প্রয়াণের দুঃসংবাদে বাংলা সিনেমা এবং সঙ্গীত জগতে শোকের ছায়া। অসীমার নাতনি নীহারিকা ভট্টাচার্য আনন্দবাজার অনলাইনকে বলেন, ‘‘দিদা পার্কিনসন্স-এ আক্রান্ত হয়েছিলেন। দীর্ঘ দিন বাড়িতেই ওঁর চিকিৎসা চলছিল। তার পর এই খারাপ খবর।’’ মঙ্গলবার দুপুরে কেওড়াতলা মহাশ্মশানে অসীমার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE