Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Mithila: কখনও রাস্তায় কেঁদে আকুল, কখনও ‘কাঁচা বাদাম’ গানে নাচ! মিথিলার দৌরাত্ম্যে নাজেহাল ‘মন্টু’?

মিথিলার মাথা সৌরভের কাঁধে। সৌরভ যেন দায়িত্ব নিয়ে জড়িয়ে রেখেছেন নায়িকাকে! এই ছবি দেখে সৃজিত কী বলছেন? ‘‘বাবু, বেশি এগিও না!’’

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ২০:৫১
Save
Something isn't right! Please refresh.
সৌরভের সঙ্গে মিথিলা।

সৌরভের সঙ্গে মিথিলা।

Popup Close

শ্যুটিং স্পট মাতাতে একাই একশো রাফিয়াত রাশিদ মিথিলা!‘মন্টু পাইলট’-এর নতুন সিজনের তিনিই প্রধান আকর্ষণ। তাঁর দৌরাত্ম্যে নাকি নাকানিচোবানি খাচ্ছেন বেচারি সৌরভ দাস ওরফে ‘মন্টু’।

১২ জানুয়ারি কালীঘাটে পুজো দিয়ে শ্যুট শুরু। দক্ষিণ কলকাতার একাধিক জায়গায় শ্যুট চলছে। সেখানেই নাকি নানা সময়ে নানা মেজাজে তিনি।সাইকেল চালিয়ে পাঁইপাঁই চক্কর কাটছেন। কখনও হিম হিম ভোর রাতে ভেজা শরীরে রাস্তায় দাঁড়িয়ে অঝোরে কাঁদছেন! আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে সৌরভের দাবি, ‘‘কাঁচা বাদাম’ গান কানে গেলে তো কথাই নেই। শ্যুট ভুলে সেটের মধ্যেই চান্দ্রেয়ী ঘোষকে নিয়ে উদ্দাম নাচ! খুব দ্রুত সবার সঙ্গে মিশে গিয়েছেন মিথিলা।’’

Advertisement
‘মন্টু পাইলট’-এ একসঙ্গে কাজ করেছেন সৌরভ এবং মিথিলা।

‘মন্টু পাইলট’-এ একসঙ্গে কাজ করেছেন সৌরভ এবং মিথিলা।


সোমবার ২১ ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসের দিনের কথাই ধরা যাক। রবিবার রাতভোর টিম ‘মণ্টু পাইলট’ শ্যুট করেছে। সৌরভ জানিয়েছেন, গত দু’দিন ধরে বৃষ্টিভেজা অভিনয়ের দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি হচ্ছে। সেই অনুযায়ী রাস্তা লম্বা পাইপ দিয়ে ভেজানো হয়েছে। এই ঠান্ডায় ভিজতে হয়েছে ‘মন্টু’ এবং তার ‘বহ্নি’ ওরফে মিথিলাকেও। শ্যুট শেষ হয়েছে সোমবার ভোর রাতে। ‘‘আমরা শীতে কাঁপছি। কিন্তু ভাষা দিবসের আবেদনকে কী ভাবে অগ্রাহ্য করি? তাই পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্যের নির্দেশে ওই অবস্থাতেই পালন করেছিলাম দিনটিকে’’, দাবি সৌরভের। সাউন্ড বক্সে বেজেছে, ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি’।

পুরো টিম শ্রদ্ধা জানাতে মাথা নীচু করে দাঁড়িয়ে। উপস্থিত মিথিলা, রূপসজ্জাশিল্পী প্রিয়াবালা। এঁরা দু’জনেই বাংলাদেশের বাসিন্দা। গান শুনতে শুনতে চোখ দিয়ে ফোঁটায় ফোঁটায় জল ঝরেছে তাঁদের। একে অপরকে জড়িয়ে সামলেছেন সেই কান্না। সৌরভ মাথায় হাত বুলিয়ে সামলানোর চেষ্টা করেছেন তাঁর ‘বহ্নি’কে। সেই রাতেই অভিনেত্রী ফের চাঙা! সাইকেল নিয়ে তাঁকে গোল হয়ে চক্কর দিতে দেখা গিয়েছে। পরনে পালাজো, ফুল ছাপ শার্ট। অঞ্চলের অনেকেই চিনতে পেরেছেন তাঁকে। তাঁরা মুগ্ধ বিস্ময়ে দেখেছেন সৃজিত-ঘরনির সাইকেল চালানো।

তবে সৌরভের সঙ্গে ‘বহ্নি’ ছবিতে আগুন জ্বেলেছেন নরম গোলাপি সোয়েট শার্ট আর ডেনিম জিন্সে। সৌরভ যেন দায়িত্ব নিয়ে জড়িয়ে রেখেছেন নায়িকাকে। একে অন্যকে নাম দিয়েছেন ‘দুষ্টু’! ছবি দেখে সৃজিত কী বলছেন? ‘‘বাবু, বেশি এগিও না!’’ শুনেই হো হো হাসি অভিনেতার। বলেছেন, ‘‘সৃজিতদা জানেন, অভিনয়ের প্রয়োজনেই সবকিছু। বাস্তবে কিছুই না! তাই অভিনয় বা পরিচালনার বাইরে কোনও কিছুই তাঁকে স্পর্শ করে না।’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement