Advertisement
০৫ ডিসেম্বর ২০২২
Shiladitya Moulik

Yash-Shiladitya: আমাকে ভুল ভাবে ব্যাখ্যা করা হচ্ছে, ‘চিনে বাদাম’-বিতর্কে উলটপুরাণ শিলাদিত্যের

‘চিনে বাদাম’ তরজায় নতুন মোড়। শুক্রবার বিবৃতি জারি করে আইনি যুদ্ধের ইঙ্গিত যশের। নিজের অবস্থান পাল্টালেন পরিচালক?

 যশ-শিলাদিত্য।

যশ-শিলাদিত্য।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১০ জুন ২০২২ ২০:০৭
Share: Save:

“আমার বক্তব্যকে ভুল ভাবে প্রচার করা হচ্ছে।”— ‘চিনে বাদাম’ তরজায় গর্জে উঠলেন পরিচালক শিলাদিত্য মৌলিক। ছবি নিয়ে তরজায় নয়া মোড় শুক্রবার। টুইটের পর এ দিনই আনুষ্ঠানিক বিবৃতি জারি করেছেন ছবির নায়ক যশ দাশগুপ্ত। পরিচালক-প্রযোজকের বিরুদ্ধে বিবৃতি দিয়ে আইনি সাহায্য নেওয়ার কথাও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। এর পরেই অন্য পথে হাঁটলেন শিলাদিত্যও।

Advertisement

আনন্দবাজার অনলাইনকে ফোনে শিলাদিত্য বলেন, “আমার কাছে অনেকেরই প্রশ্ন ছিল, কী ক্রিয়েটিভ মতানৈক্য হয়েছে? আমি বলেছি আমি জানি না। আমার বক্তব্য ছিল, ও যদি ব্যাকগ্রাউন্ডে শ্যাম্পু করা চুল উড়বে, ধোঁয়া উঠছে, এমন যদি কিছু বলত, সে ক্ষেত্রে এই মতানৈক্যের জায়গা থাকত। কিন্তু আমাদের ক্ষেত্রে এমনটা হয়নি। দু’জনেই একই রকম ভাবে ভেবেছিলাম। এক বছর ধরে আমরা কাজ করেছি। আমাদের কোনও সমস্যাই হয়নি। কত আড্ডা হয়েছে আমাদের। আমি শুধু এটাই বলেছিলাম যে ওঁর হয়তো চতুর্থ গানটা নিয়ে সমস্যা আছে। কিন্তু আমার কিছু করার ছিল না। আমিও প্রযোজকদের কাছে চুক্তিবদ্ধ।” এই কথা বলার পরেই যশের তরফ থেকে আসে টুইট। আর তাতেই বিতর্কের সূত্রপাত বলে জানিয়েছেন পরিচালক।

ছবি মুক্তির পাঁচ দিন আগে টুইটে যশ লেখেন, ‘কিছু ক্রিয়েটিভ মতানৈক্য থাকার কারণে আমি আর ‘চিনে বাদাম’ ছবির সঙ্গে যুক্ত নই। প্রযোজক, পরিচালককে আমার শুভেচ্ছা।’ এ দিনের বিবৃতির পরে প্রযোজক-নায়িকা এনা সাহা আনন্দবাজার অনলাইনকে বলেন, ‘‘যশ আমার খুব ভাল বন্ধু। কোনও বিষয় নিয়ে ওর অভিমান হতেই পারে। কেন তাই নিয়ে আইনি পথে হাঁটতে যাব? তার চেয়েও সহজ উপায় কথা বলে মিটিয়ে নেওয়া। আমি আগেও বলেছি, আবারও বলছি, যশ আমার সঙ্গে এক বার কথা বলুক। তা হলেই সব সমস্যা মিটে যাবে।’’

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তেফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Advertisement
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.