Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Nigella Seeds Benefits: কোভিডের আবহে শরীর সুস্থ রাখতে ভরসা রাখুন কালোজিরেতে

রান্নায় ব্যবহৃত হলুদ, পাঁচফোড়ন, কালোজিরে, গোলমরিচ আদার মতো প্রায় সব মশলাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয়।

সুমা বন্দ্যোপাধ্যায়
কলকাতা ১৭ জানুয়ারি ২০২২ ১২:৫৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
পটাশিয়াম, ফসফরাস ও নানান অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ কালোজিরে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা জোরদার করতে পারে।

পটাশিয়াম, ফসফরাস ও নানান অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ কালোজিরে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা জোরদার করতে পারে।
প্রতীকী ছবি।

Popup Close

এই পর্যার করোনা-স্ফীতিতে করোনাভাইরাস অমেক বেশি সংক্রামক হয়ে উঠেছে। তাই শরীরে প্রতিরোধক্ষমতা বা়ড়ানোর দিকে অনেকেই নতুন উদ্যমে মাঠে নেমেছেন। ভেষজ গবেষকদের মতে, নানা রকমের ভারতীয় মশলা কোভিডের পাশাপাশি আরও অনেক জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয়। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে সংক্রমণ আটকাতে পারে।

ভারতীয় আয়ুর্বেদে এর উল্লেখ আছে সেই প্রাচীন কাল থেকেই। রান্নায় ব্যবহৃত হলুদ, পাঁচফোড়ন, কালোজিরে, গোলমরিচ আদার মতো প্রায় সব মশলাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয়। পটাশিয়াম, ফসফরাস ও নানান অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ কালোজিরে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা জোরদার করতে পারে। বিশেষ করে এই মশলায় থাকা এসেনশিয়াল অয়েল সর্দির মোকাবিলা করতে পারে দ্রুত, জানালেন বাঁকুড়ার পত্রসায়র ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিক্যাল অফিসার আয়ুর্বেদ চিকিৎসক সুমিত সুর। আয়ুর্বেদ মতে, সামান্য কালোজিরে পাতলা কাপড়ে পুঁটলি করে ভাল করে ঘষে শুঁকলে নাক ও গলায় জমে থাকা সর্দি বেরিয়ে যায়। পাবমেডে প্রকাশিত এক গবেষণা পত্রে জানা গিয়েছে যে নিগেলা সাটিভা এল (কালোজিরের বিজ্ঞান সম্মত নাম) থেকে যে এসেনশিয়াল অয়েল পাওয়া যায় তাতে ৩৭.৩ শতাংশ প্যারাসাইমিন ও ১৩.৭ শতাংশ থার্মোক্যুইনিয়ন আছে। প্রাণীদেহে পরীক্ষা করে এই উদ্বায়ী তেলের অ্যানালজেসিক ও অ্যান্টিইনফ্ল্যামাটরি গুণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।

Advertisement
অ্যালার্জিজনিত সর্দিকাশি ও অ্যাজমা প্রতিরোধ করতে কালোজিরে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয়।

অ্যালার্জিজনিত সর্দিকাশি ও অ্যাজমা প্রতিরোধ করতে কালোজিরে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয়।
প্রতীকী ছবি।


আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞ সুমিত সুর জানালেন, ইদানীং বাজারে যে কালোজিরের তেল পাওয়া যাচ্ছে তার ঔষধিগুণ সম্পর্কে যথেষ্ট সম্বন্ধে সন্দেহ থেকে যায়। তাই বাড়ির মশলা হিসেবে যে কালোজিরে থাকে তা সরাসরি ব্যবহার করা উচিত। তেলে ফোড়ন হিসেবে ব্যবহার করার চেয়ে কালোজিরে বেটে ভাতের সঙ্গে খাওয়া যেতে পারে। এ ছাড়া সর্দি হাঁচি কাশি হলে কাপড়ে পুঁটলি করে ঘষে শুঁকলে ভাল কাজ হয়।

অ্যালার্জিজনিত সর্দিকাশি ও অ্যাজমা প্রতিরোধ করতে কালোজিরে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেয়। কালোজিরে বেটে গরম ভাতে সপ্তাহে এক দিন খেলে সর্দিকাশির প্রবণতা কমে। ত্বকের অ্যালার্জিজনিত প্রদাহ হলে কালোজিরে বাটা লাগালে দ্রুত উপশম হয়। ত্বক উজ্জ্বল রাখতে ও চুল ঝরা বন্ধ করতে কালোজিরে বেটে প্রলেপ দিলে ভাল ফল পাওয়া যায়।

তবে এখন আমাদের প্রধান লড়াই কোভিড নামক এক ধুরন্ধর ভাইরাসের সঙ্গে, সেই যুদ্ধে জয় পেতেও রোজকার খাবারে রাখুন কালোজিরে সহ অন্যান্য মশলা।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement