Advertisement
২৫ জুলাই ২০২৪
COVID-19

দেশের কোন রাজ্যে মিলল চিনের করোনা উপরূপের খোঁজ? ভ্রমণের আগে কী ভাবে সতর্ক থাকবেন?

শীতকাল মানেই ভ্রমণের মরসুম। এই সময়ে ভারতের প্রায় সব রাজ্যেই পর্যটকরা ভিড় জমান। তবে এই পরিস্থিতিতে ভ্রমণ করতে গেলে যথাযথ সুরক্ষাবিধি মানতেই হবে।

ভারতে কোভিড সংক্রমণ এই মুহূর্তে নিয়ন্ত্রণে থাকলেও, আবার অসতর্ক হলে করোনা ঢেউ দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়তে বেশি সময় নেবে না।

ভারতে কোভিড সংক্রমণ এই মুহূর্তে নিয়ন্ত্রণে থাকলেও, আবার অসতর্ক হলে করোনা ঢেউ দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়তে বেশি সময় নেবে না। ছবি: শাটারস্টক।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২১ ডিসেম্বর ২০২২ ২০:০৯
Share: Save:

চিনের করোনা পরিস্থিতি নতুন ভাবে উদ্বেগ তৈরি করেছে বিশ্ব জুড়ে। করোনা ভাইরাসের যে নতুন উপরূপ চিনে মাথাচাড়া দিয়েছে, এ বার তার খোঁজ মিলল ভারতেও। এ দেশে ইতিমধ্যে চার জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের ওই নতুন উপরূপের খোঁজ মিলেছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে ওমিক্রন বিএফ.৭। আক্রান্তরা গুজরাত এবং ওড়িশার বাসিন্দা।

ভারতে কোভিড সংক্রমণ এই মুহূর্তে নিয়ন্ত্রণে থাকলেও, আবার অসতর্ক হলে করোনা ঢেউ দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়তে বেশি সময় নেবে না। কোভিড নিয়ে দেশবাসীকে তাই সতর্ক করল কেন্দ্র। সরকারের তরফে সকলকে জনবহুল জায়গায় মাস্ক পরার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসকদের মতে, সামনের কয়েকটি দিন যদি সব রকম সুরক্ষাবিধি মেনে চলা যায়, তা হলে এই পরিস্থিতিও কাটিয়ে ওঠা যাবে। অতএব সচেতনতা বজায় রাখা জরুরি।

শীতকাল মানেই ভ্রমণের মরসুম। এই সময়ে ভারতের প্রায় সব রাজ্যেই পর্যটকরা ভিড় জমান। তবে এই পরিস্থিতিতে ভ্রমণ করতে গেলে যথাযথ সুরক্ষাবিধি মানতেই হবে।

কী কী মনে রাখবেন?

পুনরায় মাস্ক পরা শুরু করুন

এখন একশো জনের মধ্যে ৮০ জনই মাস্ক পরছেন না। তবে এই পরিস্থিতিতে আবার মাস্ক পরা শুরু করতে হবে। মূলত এই ভাইরাস প্রবেশ করে নাক ও মুখ দিয়েই। ভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করতে অতি অবশ্যই ব্যবহার করুন মাস্ক। ভ্রমণের সময়ে স্টেশন, বিমানবন্দরের মতো জনবহুল এলাকায় কাপড়ের ত্রিস্তরীয় মাস্কের উপরে আরও একটি সার্জিক্যাল মাস্ক পরে নিতে পারেন।

হাতের স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখুন

বাইরে থেকে ফিরে সবার আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিন। জামাকাপড় ছাড়ার পর ফের এক বার হাত পরিষ্কার করুন। বাইরে বেরোলে অবশ্যই সঙ্গে রাখুন স্যানিটাইজ়ার। বাইরে থাকলেও প্রতি দু’মিনিট অন্তর হাতে স্যানিটাইজ়ার মেখে নিন। ব্যাগে আবার স্যানিটাইজ়ার রাখতে শুরু করুন।

বাইরে থাকলেও প্রতি দু’মিনিট অন্তর হাতে স্যানিটাইজ়ার মেখে নিন।

বাইরে থাকলেও প্রতি দু’মিনিট অন্তর হাতে স্যানিটাইজ়ার মেখে নিন। ছবি: শাটারস্টক।

সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন

ভ্রমণ করতে চাইলে নির্জন এলাকাই বাছাই করুন। এই পরিস্থিতিতে ভিড় এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। করোনা-স্ফীতির এই ধাপে অনেক রোগীই উপসর্গহীন। ফলে এই সময়ে বেশি জলবহুল এলাকায় গেলে সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়বে বইকি।

টিকা না নেওয়া থাকলে অবশ্যই নিন

করোনার দু’টি টিকা নেওয়ার পরেও করোনা আক্রান্ত হওয়ায় অনেকেই টিকার উপর থেকে ভরসা হারিয়ে ফেলছেন। করোনা থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় কিন্তু টিকাই। বুস্টার টিকা না নেওয়া থাকলে যত দ্রুত সম্ভব নিয়ে ফেলুন।

উপসর্গ দেখা দিলেই নিভৃতবাসে রাখুন নিজেকে

সর্দি, কাশি, জ্বর, গলা ব্যথার মতো উপসর্গ দেখা দিলে পরিবারের অন্যান্য সদস্যের সংস্পর্শ থেকে নিজেকে আলাদা রাখুন। উপসর্গ এক দিন স্থায়ী হলে করোনা পরীক্ষা করিয়ে নিন। ফলাফল যদি পজিটিভ হয়, অতি অবশ্যই নিভৃতবাসে থাকুন এবং চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

COVID-19 COVID Surge COVID Vaccine
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE