Advertisement
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
UTI Remedies

পুরুষদের শরীরেও হানা দিতে পারে ইউটিআই! সংক্রমিত হলে দ্রুত সুস্থ হবেন কী ভাবে?

এই অসুখ কেবল মহিলাদের হয়, এই ধারণা ঠিক নয়। পুরুষরাও এই রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। ডায়েটে কিছু বদল এনে সংক্রমণ কমানো যায়। ইউটিআই-তে আক্রান্ত হলে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন কী করে?

Home remedies for Urinary Tract Infections.

ইউটিআই হলে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন কী ভাবে? ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৪:৫৮
Share: Save:

মূত্রনালিতে সংক্রমণ বা ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন (ইউটিআই) সব সময়ই অতর্কিতে হানা দেয়। এক বার সংক্রমিত হওয়ার পর সতর্ক না হলে বা ঠিকমতো চিকিৎসা না করালে এই রোগ একাধিক বার শরীরে হানা দিতে পারে। এই রোগ কেবল মহিলাদের হয়, এই ধারণা ঠিক নয়। পুরুষরাও এই রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। অনেকে ইউটিআই-তে আক্রান্ত হলে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই বাজারচলতি কিছু ওষুধ ও জেল ব্যবহার করতে শুরু করেন। চিকিৎসকদের মতে, এই প্রবণতা অত্যন্ত খারাপ। এতে সংক্রমণ কমে না, তার বদলে তা অনেক সময় শরীরে ঘাপটি মেরে বসে থাকে। ওষুধ বন্ধ করার কিছু দিনের মধ্যেই আবার শুরু হয় সংক্রমণ। ডায়েটে কিছু বদল এনে সংক্রমণ কমানো যায়। ইউটিআই-তে আক্রান্ত হলে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন কী করে?

প্রোবায়োটিক জাতীয় খাবার খান: মূত্রনালিতে সংক্রমণ হলে প্রোবায়োটিক জাতীয় খাদ্য বেশি করে খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। এই প্রকার খাদ্য ব্যাক্টেরিয়া সংক্রমণের ঝুঁকি কমায়। দই প্রোবায়োটিকের ভাল উৎস। দই খেলেও উপকার পেতে পারেন।

বেশি করে জল খান: মূত্রনালিতে সংক্রমণ হলে শরীরে যাতে জলের ঘাটতি না হয়, সে বিষয়ে নজর রাখুন। শীতকালে অনেকেই জল কম খান। এমনটা করলে চলবে না। প্রস্রাবে হলুদ ভাব দেখা গেলেই দেরি না করে দিনে অন্তত আড়াই লিটার জল খাওয়া শুরু করা উচিত। সাধারণত প্রতি ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা পর পর প্রস্রাব হওয়া উচিত। না হলে সতর্ক হোন। খুব বেশি ক্ষণ প্রস্রাব চেপে রাখবেন না, এতে সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে।

Home remedies for Urinary Tract Infections.

মূত্রনালিতে সংক্রমণ হলে শরীরে যাতে জলের ঘাটতি না হয়। ছবি: সংগৃহীত।

বেকিং সোডা ব্যবহার করতে পারেন: মূত্রনালিতে সংক্রমণ হলে তা কিডনিতে ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি থেকেই যায়। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে বেকিং সোডা মূত্রনালিতে সংক্রমণ সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। আধ চামচ বেকিং সোডা এক গ্লাস জলে ভাল করে মিশিয়ে দিনে এক বার করে খেলেই প্রস্রাবের সময় জ্বালা বা ব্যথার ভাব কমে যেতে পারে। তবে বেশি মাত্রায় বেকিং সোডা শরীরের ক্ষতি করতে পারে, সে ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE