Advertisement
১৬ জুন ২০২৪
Astrological Tips

ভুল গ্রহরত্ন ধারণ করলে কী ক্ষতি হয়? ধারণের আগে জ্যোতিষশাত্রের কোন কথা জানা জরুরি?

আমরা অনেকেই গ্রহের অশুভ প্রভাব কাটাতে জ্যোতিষীর দারস্থ হই। তবে সঠিক ব্যক্তির কাছে না গেলে ঘটতে পারে বড় বিপদ।

কিছু মানুষের এও ধারণা যে, কোনও গ্রহের রত্ন ধারণেই গ্রহের সব অশুভ প্রভাব নাশ হয়ে যায়।

কিছু মানুষের এও ধারণা যে, কোনও গ্রহের রত্ন ধারণেই গ্রহের সব অশুভ প্রভাব নাশ হয়ে যায়। প্রতীকী ছবি।

সুপ্রিয় মিত্র
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ মার্চ ২০২৩ ১৯:০৪
Share: Save:

আমাদের প্রত্যেকের জীবনেই কোনও না কোনও সময় গ্রহের অশুভ প্রভাব পড়ে। এর প্রতিকার বিভিন্ন উপায়ে করা যেতে পারে। যদিও অশুভ গ্রহের প্রতিকারের জন্য সর্বাধিক প্রচলিত গ্রহরত্ন ধারণ। গ্রহরত্ন ছাড়াও গ্রহ মূল, গ্রহের ধাতু, রুদ্রাক্ষ ধারণ, গ্রহের রঙের ব্যবহার, গ্রহের মন্ত্র পাঠ, গ্রহের হোমযোগ্য, গ্রহের দেবতা এবং অধি দেবতার পূজা পাঠ ইত্যাদি উপায়ে গ্রহের প্রতিকার করা যেতে পারে।

গ্রহের ফলদান এবং গ্রহ প্রতিকারের বিষয়ে অধিকাংশ মানুষের কিছু ভ্রান্ত ধারণা আছে। অনেক ক্ষেত্রেই সাধারণ মানুষের ধারণা শুভ গ্রহ যেমন বৃহস্পতি, শুক্র ইত্যাদি মানেই শুভফল দান করবে। কিছু মানুষের এও ধারণা যে, কোনও গ্রহের রত্ন ধারণেই গ্রহের সব অশুভ প্রভাব নাশ হয়ে যায় এবং ওই গ্রহ সর্বক্ষেত্রেই শুভফল দান করতে শুরু করে। এই ভ্রান্ত ধারনার বশবর্তী হয়ে অধিকাংশ ক্ষেত্রে তাঁরা অপ্রয়োজনীয় গ্রহরত্ন ধারণ করেন। যার ফলে বিপরীত প্রতিক্রিয়ার কারণে নিজেরাই বিভিন্ন সমস্যায় ভোগেন।

প্রথমেই জেনে রাখা দরকার গ্রহ রত্ন নির্বাচনের ক্ষেত্রে জন্মপত্রিকা বা হস্তরেখার সূক্ষ্ম বিচার প্রয়োজন। অভিজ্ঞতা এবং সঠিক জ্যোতিষশাস্ত্র জ্ঞানেরও প্রয়োজন। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে প্রধান ন’টি গ্রহকে দু’টি ভাগে ভাগ করা হয়। শুভ এবং অশুভ গ্রহ হিসাবে। বৃহস্পতি, শুক্র শুভ গ্রহ। চন্দ্র এবং বুধের শুভ অবস্থান হলে শুভ অন্যথায় অশুভ। শনি, মঙ্গল, রাহু এবং কেতুকে অশুভ গ্রহের পর্যায় রাখা হয়। রবি ক্রূর গ্রহ তবে অশুভ নহে।

সব রাশি বা লগ্নের ক্ষেত্রেই শুভ গ্রহ শুভ এবং অশুভ গ্রহ অশুভ ফল দান করে তা কিন্তু নয়। কোনও রাশি বা লগ্নের ক্ষেত্রে শুভ গ্রহ যেমন বৃহস্পতি হতে পারে অশুভ, বা অশুভ গ্রহ যেমন শনি বা মঙ্গল হতে পারে শুভফল দাতা গ্রহ।

লগ্নপতি নবম পতি গ্রহ সর্বদা শুভফল দাতা, লগ্নপতি বা নবম পতি গ্রহের গ্রহরত্ন ধারণে কোনও বাধা নেই। পঞ্চম পতি শুভ হলেও পঞ্চম পতির রত্ন ধারণে সূক্ষ্ম বিচার প্রয়োজন। ষষ্ঠ, অষ্টম এবং দ্বাদশ পতি গ্রহের প্রতিকারের ক্ষেত্রে বিকল্প পথই শ্রেয় রত্ন ধারণ উচিৎ নয় (অভিজ্ঞ এবং শাস্ত্রজ্ঞ জ্যোতিষীর পরামর্শ ছাড়া)। যোগ কারক গ্রহ সর্বদা শুভ ফল দাতা।

ন’টি গ্রহের সকলের সঙ্গে সকলের সম্পর্ক শুভ বা বন্ধুত্বের, তা কিন্তু নয়। রত্ন ধারণের ক্ষেত্রে লগ্নপতির সঙ্গে বা যে যে গ্রহের রত্ন ধারণ করা হবে, তাদের সম্পর্কের কথা বিবেচনা করা প্রয়োজন। স্থায়ী শত্রু গ্রহের রত্ন ধারণে বিপরীত ফলের সম্ভাবনা বৃদ্ধি করে (একাধিক রত্ন ধারণের ক্ষেত্রে) যে গ্রহের দশা অন্তঃদশা চলছে, সেই গ্রহের রত্ন ধারণের ক্ষেত্রে কখন ধারণ করা উচিৎ বা কতদিন ধারণ করতে হবে, তা অভিজ্ঞ জ্যোতিষীর পরামর্শে করা উচিত। গ্রহ প্রতিকারের ক্ষেত্রে সর্বদা অভিজ্ঞ এবং জ্ঞানী জ্যোতিষীর থেকেই পরামর্শ নেওয়া উচিত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Astrological Tips Gemstone Astrologer
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE