Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

কাশ্মীরে জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টা বানচাল

নিজস্ব সংবাদদাতা
শ্রীনগর ০৯ জুন ২০১৭ ০৩:৫২

আটচল্লিশ ঘণ্টায় চার বারের চেষ্টা। আর প্রতি বারই সেই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হলো। ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, কাশ্মীরের উত্তর অংশে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর চারটি এলাকায় জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টা রোখা হয়েছে গত দু’দিনে। জঙ্গি দমন অভিযানে মৃত্যু হয়েছে সাত জঙ্গির। নিহত হয়েছে এক ভারতীয় সেনা জওয়ানও।

আজ জম্মু-কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলার নওগাম সেক্টরে জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টা বানচাল করে ভারতীয় বাহিনী। যাতে মৃত্যু হয়েছে তিন জন জঙ্গির। জঙ্গিদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে মারা গিয়েছেন এক ভারতীয় জওয়ান। নওগাম ছাড়া গত আটচল্লিশ ঘণ্টায় জম্মু-কাশ্মীরের মছিল, উরি, আর গুরেজ সেক্টর দিয়েও ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করেছিল কিছু জঙ্গি। যাদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে চার জনের। ভারতীয় সেনা বাহিনীর তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, পাক সেনার প্রত্যক্ষ মদতেই ওই জঙ্গিরা বারবার নিয়ন্ত্ররেখা পেরিয়ে পাকিস্তান থেকে ভারতে ঢোকার চেষ্টা করছিল। কয়েক জন জঙ্গি পালাতে সক্ষম হলেও তারা ফেলে গিয়েছে নিজেদের ব্যাগ।

ভারতীয় সেনার তরফে আরও জানানো হয়েছে, তাদের পাল্টা গুলিতে জঙ্গিরা যখন পাকিস্তানের দিকে পালানোর চেষ্টা করছিল, তাদের গা ঢাকা দিতে সাহায্য করেছে পাক সেনা ও রেঞ্জার্সরা। গত ১৫ দিনে এই নিয়ে ছ’টি জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টা ব্যর্থ করেছে ভারতীয় সেনা।

Advertisement

বিশেষত গত ২৬ মে পাক সেনার দুই সদস্যকে মেরে ফেলার দাবি করেছিল ভারতীয় সেনা। অভিযোগ ছিল, বারামুলার উরি সেক্টরে ঢুকে তারা ভারতীয় সেনার উপর হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল। পরের দিন, উরিতেই ছয় জঙ্গিকে নিকেশ করে সেনা। সেনার নর্দার্ন কম্যান্ডের দাবি, চলতি বছরে কাঁটাতার পেরিয়ে মোট ২২ বার জঙ্গিদের ভারতে ঢোকার চেষ্টা ব্যর্থ করেছে তারা। জওয়ানদের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে মোট ৩৪ জন জঙ্গির। গুলি যুদ্ধে মারা গিয়েছেন বেশ কয়েক জন ভারতীয় সেনাও।

ভারতীয় সেনার বিবৃতিতে একাধিক বার জঙ্গিদের মদত দেওয়ার পিছনে পাকিস্তানি সেনার নাম করা হলেও সেই অভিযোগ বারবার অস্বীকার করে এসেছে ইসলামাবাদ। তাদের দাবি, কোনও জঙ্গি গোষ্ঠীকে কোনও ভাবেই মদত দেয় না তাদের সেনা ও সরকার। আমেরিকায় পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত প্রায় একই কথা বলতে গেলে তাঁর মন্তব্যে হাসির রোল ওঠে। ওয়াশিংটনের এক সভায় পাক রাষ্ট্রদূত এজাজ আহমেদ চৌধুরি বলেন, ‘‘পাকিস্তান কখনও জঙ্গিদের আশ্রয় দেয় না। তালিবান নেতা মোল্লা ওমরও কোনও দিন পাকিস্তান যাননি।’’ এজাজের এই বক্তব্যের পরই হো হো করে হেসে ওঠেন দর্শকাসনে বসা ব্যক্তিরা। যাতে স্পষ্ট ক্ষুব্ধ এজাজ। তিনি প্রকাশ্যে বলেই বসেন, ‘‘এতে হাসির কী হলো!’’

প্রাক্তন মার্কিন কূটনীতিক জালমে খলিলজাদ অবশ্য বলেন, ‘‘আসল ঘটনা সম্পূর্ণ আলাদা।’’ আফগানিস্তান, ইরাক আর রাষ্ট্রপুঞ্জে এর আগে আমেরিকার দূত হিসেবে কাজ করেছেন এই কূটনীতিক। তাঁর বক্তব্য, মোল্লা ওমর পাকিস্তানের কোথায় কোথায় থেকেছেন, কোন হাসাপাতালে চিকিৎসা করিয়েছেন সেই সব তথ্য তাঁদের হাতে আছে। ফলে এজাজ যা দাবি করছেন, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতের প্রাক্তন মন্ত্রী মণীশ তিওয়ারি। তিনিও এজাজের বক্তব্যের বিরোধিতা করে খললিজাদকে সমর্থন করেন।

এরই মধ্যে আজ পাকিস্তান সরকার দাবি করেছে, বালুচিস্তান প্রদেশের জঙ্গি উপদ্রুত এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১২ জন কট্টর জঙ্গিকে মেরে ফেলেছে তাদের বাহিনী। যাদের মধ্যে রয়েছে দুই আত্মঘাতী জঙ্গিও। গত ১ থেকে ৩ জুনের মধ্যেই ওই জঙ্গি দমন অভিযান চালানো হয়েছে বলে পাক সেনা সূত্রে খবর। ওই জঙ্গিরা আইএসের সঙ্গে হাত মেলানোর চেষ্টা করছিল বলে দাবি করেছে পাক বাহিনী।



Tags:
Jammu & Kashmir Indian Armyজম্মু কাশ্মীর

আরও পড়ুন

Advertisement