Advertisement
০৬ ডিসেম্বর ২০২২

বিরিয়ানি বিক্রির ‘অপরাধে’ দিল্লির কাছেই নিগৃহীত এক দলিত

সংবাদসংস্থা সূত্রের খবর, নিগৃহীত ওই যুবকের নাম লোকেশ (৪৩)। তিনি ঠেলাগাড়িতে বিরিয়ানি বিক্রি করেন। ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োটিতে দেখা যাচ্ছে, নিগৃহীত এই যুবককে একটি দেওয়ালে চেপে ধরে এলোপাথাড়ি চড়, ঘুসি মারা হচ্ছে। শোনা যাচ্ছে, বেশ কয়েকজন বারবার তাঁকে ক্ষমা চাইতে বলছেন ‘নীচুতলার’ হয়েও বিরিয়ানি বিক্রির ‘অপরাধে’।

নিগ্রহের শিকার দিল্লির দলিত ব্যক্তি। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

নিগ্রহের শিকার দিল্লির দলিত ব্যক্তি। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

সংবাদসংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৯:০৮
Share: Save:

ফুটপাথে বিরিয়ানি বিক্রি করা এক ব্যক্তিরউপর চড়াও হল স্থানীয় কয়েকজন। অভিযোগ, জাতিবিদ্বেষের জেরেই নিগ্রহ করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে। শুক্রবার বিকেলে রাজধানী দিল্লি থেকে ৬৬ কিলোমিটার দূরে রাবুপুরা অঞ্চলে এই ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার ভিডিয়ো মুহূর্তের মধ্যেই ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে।

Advertisement

সংবাদসংস্থা সূত্রের খবর, নিগৃহীত ওই যুবকের নাম লোকেশ (৪৩)। তিনি ঠেলাগাড়িতে বিরিয়ানি বিক্রি করেন। ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োটিতে দেখা যাচ্ছে, নিগৃহীত এই যুবককে একটি দেওয়ালে চেপে ধরে এলোপাথাড়ি চড়, ঘুসি মারা হচ্ছে। শোনা যাচ্ছে, বেশ কয়েকজন বারবার তাঁকে ক্ষমা চাইতে বলছেন ‘নীচুতলার’ হয়েও বিরিয়ানি বিক্রির ‘অপরাধে’।

লোকেশের অভিযোগ, শুক্রবার চার ব্যক্তি একটি চার চাকার গা়ড়ি চড়ে তাঁর দোকানে আসেন। কিছু বুঝে ওঠার আগেই শুরু হয় দোকান ভাঙচুর করা। বারবার তাঁর উদ্দেশে জাতিবিদ্বেমূলক মন্তব্য করা হতে থাকে। প্রতিবাদ জানালেই শুরু হয় পাল্টা মারধর। তাঁকে সাবধান করে বলা হয়, ভবিষ্যতে কখনও বিরিয়ানি না বিক্রি করতে।

শনিবার ভিডিয়োটি সামনে আসতেই পুলিশ আসরে নামে। নিগৃহীত ওই যুবকের সঙ্গে কথা বলে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। গ্রেটার নয়ডার পুলিশ সুপার রণবিজয় সিংহ বলেন, ‘‘আক্রান্তকে আমরা শনাক্ত করেছি ভিডিয়োটি দেখে। তিন অভিযুক্তের খোঁজ চলছে।’’

Advertisement

দেখুন ভিডিওটি:

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.