Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

দেশে মন্দা চলছে, ৫ শতাংশ জিডিপি অপ্রত্যাশিত, বললেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৯:৩৮
রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। —ফাইল চিত্র

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। —ফাইল চিত্র

গাড়ি বিক্রিতে ধসের কারণ হিসেবে তরুণ-প্রজন্মের ওলা-উবরের উপর নির্ভরতাকে দায়ী করেছিলেন নির্মলা সীতারামন। দেশে মন্দা চলছে, এ কথাও সরাসরি মানতে চাননি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। কিন্তু সেই মন্দার তত্ত্বেই সিলমোহর দিলেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে তিনি স্পষ্টই বললেন, দেশে মন্দা চলছে। তবে ডিজিপি বৃদ্ধির হার যে ছ’বছরে সর্বনিম্ন ৫ শতাংশে নেমে যেতে পারে, এটা কেউ ভাবতে পারেননি বলেও জানিয়েছেন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গভর্নর।

চলতি আর্থিক বছরের শুরুতেই মন্দার ইঙ্গিত পেয়েছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্কের আর্থিক নীতি নির্ধারণ কমিটি। সেই কারণেই জুনে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জিডিপি বৃদ্ধির হার অনুমান করেছিল, ৭ শতাংশ। যেটা আগের বছরে ছিল ৭.২ শতাংশ। কিন্তু অগস্টে সেই পূর্বাভাস আরও কমিয়ে জিডিপি বৃদ্ধির হার ধরা হয়েছিল ৬.৯। কিন্তু সমীক্ষার রিপোর্ট আসার পর দেখা যায়, তার ধারেকাছেও নেই জিডিপি বৃদ্ধির হার। বরং ছ’বছরে সবচেয়ে নীচে নেমে বৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে ৫ শতাংশে। এর পরই অশনি সঙ্কেত দেখা দেয় দেশের অর্থনীতিতে।শিল্পোৎপাদন থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রেই যে মন্দা চলছে, সেই আশঙ্কা প্রকাশ করছিল শিল্পমহল।

কিন্তু অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন সে কথা মানতে চাননি। তিনি বলেছেন, সারা বিশ্বেই মন্দা চলছে। ভারতীয় অর্থনীতি তথা বৃদ্ধির হারে তারই প্রভাব। কিন্তু রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর সেই তত্ত্ব খারিজ করে সোমবার স্পষ্টই বলেছেন, ‘‘আমরা মেনে নিয়েছি যে দেশ আর্থিক মন্দার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।’’ তবে একই সঙ্গে তিনি এটাও বলেছেন, ‘‘বৃদ্ধির হার নির্দিষ্ট হারে ফিরিয়ে আনাই সরকারের অগ্রাধিকার হওয়া উচিত।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: রাজীবকে ‘খুঁজে পাচ্ছে না’ নবান্নও, সিবিআইকে জবাব ডিজি-র, সাহায্যে বিমুখ রাজ্য?

আরও পডু়ন: বুধবার মোদী-মমতা বৈঠক দিল্লিতে, কালই রাজধানী যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী

কিন্তু জিডিপি কেন ৫ অঙ্কে নেমে গেল? কারণটা অবশ্য এখনও রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বোধগম্য হয়নি, জানাচ্ছেন গভর্নর। তিনি বলেন, আমরা ৫.৮ শতাংশ বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছিলাম। কেউই ৫.৫ শতাংশের নীচে নামার আশঙ্কা প্রকাশ করেনি। ফলে এই সংখ্যা (৫ শতাংশ জিডিপি) অপ্রত্যাশিত। সব পূর্বাভাসের চেয়েও খারাপ। আমরা বিশ্লেষণ করে দেখছি, কেন এত নীচে নেমে গেল জিডিপি।’’

আরও পড়ুন

Advertisement