Advertisement
২৩ জুলাই ২০২৪
India-Pakistan

India-Pakistan: অসতর্কতায় ক্ষেপণাস্ত্র উড়ে গিয়েছিল পাকিস্তানে, সংসদে বললেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ

গত ৯ মার্চ সন্ধ্যা ৭টায় ক্ষেপণাস্ত্রের রুটিন রক্ষণাবেক্ষণ এবং পরিদর্শনের সময় অসতর্কতাবশত ওই দুর্ঘটনা ঘটেছিল বলে জানান প্রতিরক্ষামন্ত্রী। এর পরেই ওই ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটির সুরক্ষা ও প্রযুক্তি ব্যবস্থা পরীক্ষা করে হয়েছে জানিয়ে  বলেন, ‘‘আমরা সমরাস্ত্রের সুরক্ষা ব্যবস্থাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকি।’’

ক্ষেপণাস্ত্র-কাণ্ডে রাজ্যসভায় বিবৃতি রাজনাথের।

ক্ষেপণাস্ত্র-কাণ্ডে রাজ্যসভায় বিবৃতি রাজনাথের। নিজস্ব চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৫ মার্চ ২০২২ ১৪:৩২
Share: Save:

ভারতীয় সেনার ক্ষেপণাস্ত্র লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে পাকিস্তানের মাটিতে আছড়ে পড়ার ঘটনা নিয়ে সংসদে বিবৃতি দিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। মঙ্গলবার রাজ্যসভায় তিনি বলেন, ‘‘অসতর্কতাবশত ঘটে যাওয়া ওই ঘটনাটি সরকার অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে দেখছে। এ বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’’

প্রতিরক্ষামন্ত্রী সেই সঙ্গেই সংসদকে আশ্বস্ত করে বলেন, ‘‘আমাদের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য এবং নিরাপদ।’’ গত ৯ মার্চ সন্ধ্যা ৭টায় ক্ষেপণাস্ত্রের রুটিন রক্ষণাবেক্ষণ এবং পরিদর্শনের সময় অসতর্কতাবশত ওই দুর্ঘটনা ঘটেছিল বলে জানান তিনি। এর পরেই ওই ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটির সুরক্ষা ও প্রযুক্তি ব্যবস্থা পরীক্ষা করে হয়েছে জানিয়ে রাজনাথ বলেন, ‘‘আমরা সমরাস্ত্রের সুরক্ষা ব্যবস্থাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকি।’’

সূত্রের খবর, গত ৯ মার্চ হরিয়ানার সিরসায় সেনা মহড়া চলাকালীন ‘প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে ভারতীয় সেনার একটি ক্ষেপণাস্ত্র গিয়ে আছড়ে পড়ে পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশের মিলন চানু শহরে। তবে খবরটি প্রথম প্রকাশ করে রাশিয়ার সংবাদ সংস্থা স্পুটনিক। তারাই প্রথম একটি ভারতীয় ক্ষেপণাস্ত্রের লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ার খবর জানায়।

এর পরের দিন একটি বিবৃতি দিয়ে নয়াদিল্লি ঘটনার কথা স্বীকার করে। জানায়, ঘটনাটি ভুল করে ঘটেছিল। এ বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের তদন্ত শুরু হয়েছে বলেও সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়। এর পর পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মোঈদ ইউসুফ অভিযোগ করেন, বিদেশি সংবাদমাধ্যম বিষয়টি প্রকাশ্যে আনার আগে নয়াদিল্লি এ বিষয়ে ইসলামাবাদকে কিছু জানানোর সৌজন্যটুকুও দেখায়নি।

পাশাপাশি, তিনি বলেন, ‘‘স্পর্শকাতর প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি ব্যবহারের কোনও যোগ্যতাই ভারতের নেই।’’ গত শুক্রবার ক্ষেপণাস্ত্র-কাণ্ড নিয়ে লিখিত বিবৃত দেয় ইসলামাবাদ। এই ঘটনার যৌথ তদন্তের দাবি করা হয় ইমরান খান সরকারের তরফে। প্রসঙ্গত, ক্ষেপণাস্ত্র-কাণ্ডে ইতিমধ্যেই ভারতের অবস্থান সমর্থন করেছে আমেরিকা। সোমবার রাতে আমেরিকার বিদেশ দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেন, ‘‘আমরা খোঁজ নিয়ে দেখেছি, বিষয়টি নিছক দুর্ঘটনা ছাড়া আর কিছুই নয়।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE