Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
National News

রাহুলকে ‘মানসিক ভাবে অসুস্থ’ বলে দল ছাড়লেন দিল্লির মহিলা কংগ্রেস নেত্রী

দলের মধ্যে ‘বিশৃঙ্খলার’ অভিযোগ তুলে আগেই সরব হয়েছিলেন দিল্লির মহিলা কংগ্রেসের সভাপতি বরখা সিংহ। এ বার সরাসরি আক্রমণ করেন কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গাঁধীকে।

দিল্লির মহিলা কংগ্রেস সভাপতি বরখা সিংহ। ছবি: সংগৃহীত।

দিল্লির মহিলা কংগ্রেস সভাপতি বরখা সিংহ। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০১৭ ১১:৪০
Share: Save:

দলের মধ্যে ‘বিশৃঙ্খলার’ অভিযোগ তুলে আগেই সরব হয়েছিলেন দিল্লির মহিলা কংগ্রেসের সভাপতি বরখা সিংহ। এ বার সরাসরি আক্রমণ করেন কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গাঁধীকে। রাহুল ‘মানসিক ভাবে অসুস্থ’ এই অভিযোগ তুলে বৃহস্পতিবার দিল্লির মহিলা কংগ্রেসের সভাপতির পদ ছাড়েন বরখা সিংহ।

তাঁর অভিযোগ, নারী শক্তি ও নারীদের নিরাপত্তা নিয়ে কংগ্রেস যতই ঢাক-ঢোল পেটাক না কেন, আসলে ভোট ব্যাঙ্কের জন্যই এই ইস্যু সামনে রাখেন রাহুল, অজয় মাকেনরা। সংগঠনের মধ্যে তাঁর মতো এক জন মহিলার যদি নিরাপত্তা না থাকে, তা হলে অন্য মহিলাদের নিরাপত্তা দেবেন কী করে, প্রশ্ন তোলেন বরখা। এই কারণেই দিল্লি মহিলা কংগ্রেসের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে জোট, নবীন অবশ্য চুপই

বরখা বলেন, “দলের অন্য শীর্ষ নেতারাও রাহুলের দল চালানো নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। দলের নেতৃত্বের জন্য রাহুল মোটেই আদর্শ নন বলে মনে করেন তাঁরা।” তাঁর অভিযোগ, কংগ্রেস নেতা অজয় মাকেন সংগঠনের মহিলাদের সঙ্গে ‘দুর্ব্যবহার’ করেন, এ বিষয়টা দলের সহ-সভাপতি রাহুল গাঁধীকে জানানো সত্ত্বেও তিনি কোনও পদক্ষেপ করেননি। কংগ্রেসের এক বিশ্বস্ত সৈনিক হওয়ার পরেও এ ধরনের আচরণ কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না বলেই মনে করেন বরখা। তাঁর প্রশ্ন, সংগঠনের মধ্যে এমন অবস্থা চলা সত্ত্বেও রাহুল গাঁধী কেন দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করতে চাইছেন না? কেন তিনি দলীয় কর্মীদের এড়িয়ে চলছেন? বরখা জানান, রাহুলের এই ‘এড়িয়ে চলা’ মনোভাবের জন্য অনেক নেতা-কর্মী দল ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছেন।

তবে দলের বিরুদ্ধে বরখার এই মন্তব্যগুলোকে ব্যক্তিগত আক্রোশ বলেই দাবি করেছেন দিল্লির প্রদেশ কংগ্রেসের মুখপাত্র শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায়। দিল্লির পুর নির্বাচনের আগে বরখা ইচ্ছাকৃত ভাবে এ সব কথা বলে দলকে কালিমালিপ্ত করতে চাইছেন বলে মত শর্মিষ্ঠার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE