Advertisement
২৩ মে ২০২৪
Weightlifting

আটাত্তরেও ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতায় সেরা! পুণের শ্রীকান্ত দেখালেন বয়স সংখ্যা মাত্র

শ্রীকান্ত বলেন, “আমি প্রতি দিন ব্যায়াম করি। মজবুত শরীর বানিয়েছি। রাজহংস মেহানডালেকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছিলাম। তিনিই আমাকে ভারোত্তোলনে আগ্রহী করে তুলেছেন।”

ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতায় পুণের শ্রীকান্ত। ছবি: সংগৃহীত।

ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতায় পুণের শ্রীকান্ত। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
পুণে শেষ আপডেট: ০৬ জানুয়ারি ২০২৩ ১৬:০৫
Share: Save:

যে বয়সে মানুষ ঘরে বিশ্রাম নেন, অবসর সময় কাটান, সেই বয়সেই শারীরিক শক্তিপ্রদর্শনে ব্যস্ত পুণের এক বৃদ্ধ। বয়স তাঁকে বৃদ্ধ বলতে বাধ্য করলেও, মানসিক ভাবে তিনি যেন সদ্য তরুণ! তিনি শ্রীকান্ত আদকর। বয়স ৭৮। শ্রীকান্তই এখন অনুপ্রেরণা পুণের তরুণ প্রজন্মের কাছে।

এই বয়সেও নিজেকে কী ভাবে সুস্থ রাখতে হয়, তার অন্যতম দৃষ্টান্ত শ্রীকান্ত। সম্প্রতি তিনি ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন। ৭৮ বয়সি এই বৃদ্ধের কাছে কুড়ি-পঁচিশের যুবকরাও হার মানতে বাধ্য হয়েছেন। ৫০ কেজি বিভাগে ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন শ্রীকান্ত।

তিনি বলেন, “আমি প্রতি দিন ব্যায়াম করি। মজবুত শরীর বানিয়েছি। রাজহংস মেহানডালেকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছিলাম। তিনিই আমাকে ভারোত্তোলনে আগ্রহী করে তুলেছেন।” শ্রীকান্তের কথায়, “এই বয়সে ভারোত্তোলন একটা চ্যালেঞ্জ ছিল আমার কাছে। এই বয়সে হাড়ের জোর কমে যায়, নানা রকম সমস্যা আসে। কিন্তু সে সবকে দূরে সরিয়ে এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছিলাম। অবশ্যই এ বিষয়ে অভয় দিয়েছিলেন মেহানডালে। তাই আজ আমি সফল।”

এই শরীর ধরে রাখার রহস্যও ফাঁস করেছেন শ্রীকান্ত। তিনি বলেন, “তরুণ বয়স থেকে দেহসৌষ্ঠব প্রতিযোগিতায় অংশ নিতাম। পুণেশ্রী খেতাবও পেয়েছিলাম। এ ছাড়া আরও অনেক খেতাব পেয়েছি। কিন্তু ভারোত্তোলনের বিষয়ে খুব একটা মাথা ঘামাইনি কোনও দিন। তা-ও আবার এই বয়সে এসে ভারোত্তোলন! কিন্তু নিয়মিত শরীরচর্চা চালিয়ে যাওয়ায় এই চ্যালেঞ্জ নেওয়াটা অনেকটাই সহজ হয়ে গিয়েছিল।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Weightlifting Old Man Pune
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE