×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

নজরে চিন, হালকা ওজনের ট্যাঙ্ক কেনায় অনুমোদন কেন্দ্রের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৫ জুলাই ২০২০ ২০:২৪
এই মুহূর্তে ভারতের কাছে এই ধরনের ভারী ট্যাঙ্ক রয়েছে।—ফাইল চিত্র।

এই মুহূর্তে ভারতের কাছে এই ধরনের ভারী ট্যাঙ্ক রয়েছে।—ফাইল চিত্র।

চিনের সঙ্গে সীমান্তে সঙ্ঘাতের মধ্যেই এ বার হালকা ওজনের ট্যাঙ্ক কেনায় সিলমোহর দিল কেন্দ্রীয় সরকার। সম্প্রতি গালওয়ানে দুই দেশের মধ্যে সংঘর্ষ পরবর্তী সময়ে পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর এই ধরনের ১৫টি ট্যাঙ্ক মোতায়েন করেছিল চিন, যাতে দিল্লিতে উদ্বেগ ধরা পড়েছিল। তাই অপেক্ষাকৃত উঁচু ও পাহাড়ি এলাকায় মোতায়েনের জন্য হালকা ওজনের ট্যাঙ্ক কেনায় অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্র।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, লাদাখের মতো এলাকায় চিনকে টক্কর দিতে হলে হালকা ওজনের ট্যাঙ্কের প্রয়োজন রয়েছে বলে কেন্দ্রকে জানায় সেনাবাহিনী। বিমানে করে নিয়ে যাওয়া সম্ভব এমন ট্যাঙ্ক কেনার সুপারিশ করে তারা। তার পরই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

কোন দেশ থেকে এই হালকা ওজনের ট্যাঙ্ক কেনা হবে, তা যদিও এখনও স্থির হয়নি। তবে চিন ছাড়া এই মুহূর্তে রাশিয়াই যেহেতু একমাত্র দেশ, যারা বিমানে বয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব এমন হালকা ওজনের ট্যাঙ্ক তৈরি করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও হালকা ওজনের ট্যাঙ্ক তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। তবে সেটি এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। তাই রাশিয়া ছাড়া ভারতের আর কোথাও যাওয়ার উপায় নেই বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

Advertisement

আরও পড়ুন: মেয়াদ পূর্তির আগেই পদত্যাগ করতে পারেন নির্বাচন কমিশনার অশোক লাভাসা

আরও পড়ুন: ‘ঝুঁকি বাড়ছে’, করোনা নিয়ে রাজ্যকে একগুচ্ছ পরামর্শ অভিজিৎদের​

ভলগোগ্রাদ ট্র্যাক্টর প্ল্যান্টে বিমানে বয়ে নিয়ে যাওয়ার যোগ্য হালকা ওজনের ২এস২৫ স্প্রা-এসডি ট্যাঙ্ক তৈরি করে রাশিয়া। এটি স্বচালিত ট্যাঙ্ক। অর্থাৎ শত্রুপক্ষের ট্যাঙ্ক এবং উড়ন্ত সাঁজোয়া যান খুঁজে বার করে ধ্বংস করে দিতে সক্ষম এটি। ওজনে হালকা হওয়ায় এই ট্যাঙ্ক বিমান থেকে যে কোনও জায়গায় নামিয়ে দেওয়া যায়।

Advertisement