Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

শবরীমালায় গ্রেফতার হওয়া ভক্তদের পাশে রয়েছি আমরা: অমিত শাহ

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের আড়ালে মন্দিরের ভক্তদের ওপর অত্যাচার চালানো সহ্য করা হবে না বলেও কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নকে হুঁশিয়ারি দিয়

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৭ অক্টোবর ২০১৮ ১৫:৫০
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

কেরল পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়া শবরীমালা মন্দিরের ২ হাজার ৮২৫ ভক্তের পাশে দাঁড়ালেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। পাশাপাশি ভক্তদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান চালানোর জন্য কেরলের বাম সরকারকেও এক হাত নিয়েছেন তিনি।

অমিত শাহ-এর দাবি, ‘‘কেরলে চলছে ধর্মীয় বিশ্বাস আর সরকারি নিষ্ঠুরতার মধ্যে সংঘর্ষ। এই ইস্যুর সুযোগ নিয়ে বিজেপি ও অন্যান্য রাজনৈতিক দলের কর্মী-সমর্থকদের ওপর অত্যাচার চালাচ্ছে কেরলের বাম সরকার। আমাদের দলের হাজার হাজার কর্মী এখন জেলবন্দি।’’ শনিবার কেরলের কান্নুর বিমানবন্দরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পর একটি জনসভায় এই বক্তব্য রাখেন বিজেপি সভাপতি।

একই সঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের আড়ালে মন্দিরের ভক্তদের ওপর অত্যাচার চালানো সহ্য করা হবে না বলেও কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন অমিত। তাঁর অভিযোগ, পুরো বিষয়টিই আসলে মন্দির বিরোধী কমিউনিস্ট ষড়যন্ত্র। ভক্তদের সুরে সুর মিলিয়ে অমিত বলেছেন, ‘‘শবরীমালার আয়াপ্পাস্বামী ব্রহ্মচারী দেবতা। সেই কারণেই মন্দিরে ১০ থেকে ৫০ বছর বয়সী মহিলাদের প্রবেশ নিষেধ। ভারতের অনেক মন্দিরেই পুরুষদের প্রবেশ নিষেধ। শবরীমালার ভক্তদের অনুভূতির পাশেই আছি আমরা।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: বিজনেস পার্টনারকে মেরে ২৫ টুকরো, পরে নিজের স্ত্রীকেও খুন!

শবরীমালা মন্দিরে ১০ থেকে ৫০ বছর বয়সী মহিলা ভক্তদের প্রবেশাধিকার নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর থেকেই উত্তাল কেরল। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশিকা মেনে এখনও পর্যন্ত অন্তত ১২ জন মহিলা ভক্ত পাঁচ কিলোমিটার রাস্তা ট্রেক করে মন্দিরের গেট পর্যন্ত পৌঁছেছেন। কিন্তু ভক্তদের বিরোধিতার মুখে পড়ে তাঁরা আটকে গিয়েছেন গেটেই। এখনও আয়াপ্পাস্বামী বিগ্রহের মূর্তি দর্শন করতে পারেননি কোনও মহিলা ভক্তই। মন্দিরে যাওয়ার রাস্তা এখন কার্যত যুদ্ধক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় মানবপ্রাচীর তৈরি করে রাস্তা অবরুদ্ধ করে রেখেছেন ভক্তরা।

আরও পড়ুন: শবরীমালা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে সমর্থন, কেরলের আশ্রমে আগুন ধরাল দুষ্কৃতীরা

পরিস্থিতি আরও ঘোরাল হয় গত বৃহস্পতিবার থেকে। সে দিন পুলিশ-প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসেছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। কাউকে মন্দিরে ঢুকতে যাতে বাধা দেওয়া না হয়, সেই ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে নির্দেশ দেন তিনি। এর পরই গত কয়েক দিনে শবরীমালা যাওয়ার রাস্তা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ২,৮২৫ জনকে। ৪৯৫টি মামলাও দায়ের করেছে পুলিশ। পুলিশ প্রশাসনের চাপে কোণঠাসা হয়ে পড়া ভক্তদের পাশে দাঁড়িয়ে বিষয়টিতে অবশ্যই নতুন মাত্রা যোগ করলেন অমিত শাহ। যদিও তাঁর এই মন্তব্য সুপ্রিম কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে যাচ্ছে। সেক্ষেত্রে বিপাকে পড়তে পারেন অমিত, এমনটাও বলছেন অনেকেই।

দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরা বাংলা খবর পেতে পড়ুন আমাদের দেশ বিভাগ।

আরও পড়ুন

Advertisement