Advertisement
১৯ মে ২০২৪
National News

তালাক পাওয়া মুসলিম মহিলাদের জন্য পেনশনের পরিকল্পনা অসম সরকারের

তিন তালাক পাওয়া মুসলিম মহিলাদের জন্য এ বার পেনশন প্রকল্প চালু করতে চলেছে অসম সরকার। বৃহস্পতিবার এ কথা জানান রাজ্যের স্বাস্থ্য ও শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ০৫ মে ২০১৭ ১০:৩৩
Share: Save:

তিন তালাক পাওয়া মুসলিম মহিলাদের জন্য এ বার পেনশন প্রকল্প চালু করতে চলেছে অসম সরকার। বৃহস্পতিবার এ কথা জানান রাজ্যের স্বাস্থ্য ও শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।

তিন তালাকের পর মুসলিম মহিলারা যাতে স্বনির্ভর হয়ে উঠতে পারেন সে জন্য কারিগরি বিষয়েও প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে তাঁদের। পাশাপাশি সমস্ত বিবাহবিচ্ছিন্না মহিলাদেরও এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে বলে জানান শর্মা। তাঁর মতে, বিবিহবিচ্ছিন্না অন্যান্য মহিলার মতোই তালাকের পর মুসলিম মহিলারা খোরপোশ হিসাবে কিছুই পান না। ফলে তাঁদের নানা সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি দিতেই তাঁদের স্বনির্ভর করে তোলার পাশাপাশি পেনশনও দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: বিলকিস বানো গণধর্ষণ মামলায় ফাঁসির আর্জি খারিজ বম্বে হাইকোর্টের

রাজ্য সরকারের ‘রিভাইসড ড্রাফ্ট পপুলেশন পলিসি’তে তালাক প্রাপ্ত মুসলিম মহিলাদের পেনশন নিয়ে প্রস্তাব পেশ করা হয়। আগামী অগস্টেই বিধানসভার অধিবেশনে এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর। প্রস্তাবিত এই নীতির মূল উদ্দেশ্য হল রাজ্যের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ। সরকার আগেই ঘোষণা করেছিল যাঁদের দুটোর বেশি সন্তান থাকবে, তাঁরা কোনও সরকারি চাকরি পাবেন না। প্রস্তাবিত নীতি যদি অনুমোদন পায় তা হলে সরকার আরও একটা বড় লক্ষ্যের দিকে এগোবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।


অসমের স্বাস্থ্য ও শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। ছবি: সংগৃহীত।

তিন তালাক নিয়ে নরেন্দ্র মোদী সরকার বরাবরই সরব। সুপ্রিম কোর্টে বিষয়টি উঠলে, সেখানেও তিন তালাক প্রথার বিরোধিতা করে কেন্দ্র। তাদের মতে, এই প্রথা মুসলিম মহিলাদের মর্যাদাকে ক্ষুণ্ণ করে। তাই তিন তালাক প্রথা তুলে দেওয়ার পক্ষেই সরব হয়েছে কেন্দ্র। কেন্দ্রের এই প্রস্তাবের তীব্র প্রতিবাদ ও সমালোচনা করেছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE