Advertisement
০২ ডিসেম্বর ২০২২
Uttar Pradesh

মায়ার লড়াই

মথুরা থেকে ৪৭ কিলোমিটার দূরে বরসানার প্রায় চারশো বছরের পুরনো ওই মন্দির ঘিরে গোস্বামী বংশের কৃষিজমি। যাঁদের নামে জমি, তাঁরাই পুরুষানুক্রমে সেবাদার হতে পারেন।

উত্তরপ্রদেশের বরসানার রাধারানি মন্দির।

উত্তরপ্রদেশের বরসানার রাধারানি মন্দির। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
মথুরা শেষ আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:৫০
Share: Save:

উত্তরপ্রদেশের বরসানার রাধারানি মন্দিরে প্রথম মহিলা প্রধান পুরোহিত হয়েছেন মায়াদেবী। মৃত স্বামীর জায়গায় তিনি এসেছেন দায়িত্বে। তবে বিষয়টি গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত।

Advertisement

মথুরা থেকে ৪৭ কিলোমিটার দূরে বরসানার প্রায় চারশো বছরের পুরনো ওই মন্দির ঘিরে গোস্বামী বংশের কৃষিজমি। যাঁদের নামে জমি, তাঁরাই পুরুষানুক্রমে সেবাদার হতে পারেন। বর্তমানে বংশের তিনটি ভাগ থেকে পালা করে সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়।

মায়াদেবীর স্বামী হরিবংশলালের মৃত্যু হয়েছে ১৯৯৯ সালে। ২০২০ সালের এপ্রিলে তাঁর ভাগের সেবাদার হওয়ার পালা আসছিল। অনেকে ভেবেছিলেন, হরিবংশলালের ভাইপো রাসবিহারী তা পাবেন। কিন্তু ছাতার নিম্ন আদালতের দ্বারস্থ হয়ে মায়া তা পান। যা নিয়ে চলছে আইনি লড়াই। বর্তমানে ইলাহাবাদ হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন রাসবিহারী। তাঁর আইনজীবী আশুতোষ শর্মা দাবি করেছেন, জেলা আদালতের রায় তাঁদের পক্ষে থাকলেও মায়া জায়গা ছাড়তে চাননি।

অবশ্য মায়া নিজে এখনও অর্চনা করতে পারেন না। তবে কে আরতি করবেন থেকে তহবিল কী ভাবে খরচ হবে, সেই সিদ্ধান্ত তিনিই নেন। মন্দিরের এক পুরোহিত নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, মায়া আসার পরে মন্দিরে মহিলা ভক্ত বেড়েছে। অনেকে জানান, মায়া বিগ্রহের একেবারে কাছাকাছি যেতে দেন।

Advertisement

মায়া বলেন, ‘‘ষাট বছর রাধারানির সেবা করেছি। যখন তাঁর কাছাকাছি যাওয়ার সুযোগ এল, কেন অন্যকে ছাড়ব?’’ তিনি জানান, লড়াই আইনি পথে লড়তে চান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.