Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বাংলা নয়, যোগীরাজ্যে কোভ্যাক্সিন কারখানা, প্রতি মাসে তৈরি হবে ২ কোটি টিকা

কাজ শুরু হওয়ার পর প্রতি মাসে ২ কোটি টিকা তৈরি হবে সেখানে। এ জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রক বিআইবিসিওএল-কে ৩০ কোটি টাকা দেবে বলে জানা গিয়েছে।

সংবাদ সংস্থা
বুলন্দশহর ১৩ মে ২০২১ ১০:১৩
Save
Something isn't right! Please refresh.


ফাইল চিত্র

Popup Close

দেশ জুড়ে কোভিড টিকার অভাব। টিকাকরণে গতি আনতে প্রয়োজন প্রচুর পরিমাণ টিকার ডোজ। সেই ঘাটতি মেটাতে উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরে তৈরি করা হবে কোভ্যাক্সিন টিকা। বুধবার কেন্দ্র এ ব্যাপারে অনুমোদন দিয়েছে। খুব শীঘ্রই সেখানে টিকা উৎপাদন শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে। এ রাজ্যে টিকা তৈরির কারখানা তৈরি করতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বাংলাকে টপকে যোগীরাজ্যেই কারখানা করার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র।

কোভ্যাক্সিন টিকা তৈরি করেছে হায়দরাবাদের সংস্থা ভারত বায়োটেক। বুলন্দশহরে রয়েছে ভারত ইমিউনোলজিক্যাল অ্যান্ড বায়োলজিক্যাল কর্পোরেশন লিমিটেড (বিআইবিসিওএল)-এর কারখানা। ওই সংস্থার সঙ্গেই গাঁটছড়া বেঁধেই আগামী দিনে বুলন্দশহরে তৈরি হবে কোভ্যাক্সিন। কাজ শুরু হওয়ার পর প্রতি মাসে ২ কোটি টিকা তৈরি হবে সেখানে। এ জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রক বিআইবিসিওএল-কে ৩০ কোটি টাকা দেবে বলে জানা গিয়েছে। ১৯৮৯ সালে তৈরি হওয়া বুলন্দশহরের ওই প্রতিষ্ঠানে পোলিও টিকা-সহ বেশ কয়েকটি টিকা তৈরি হয়েছে।

Advertisement

প্রসঙ্গত, বুধবার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লেখেন, ‘কেন্দ্র যদি চায়, তবে টিকা তৈরির কারখানার জন্য রাজ্য জমি দিতেও রাজি’। একই প্রস্তাব দেশের টিকা উৎপাদনকারী সংস্থাগুলিকেও দিয়েছেন মমতা।

মূলত ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন এবং সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি কোভিশিল্ডের ডোজ দেওয়া হচ্ছে ভারতে। কিন্তু চাহিদার তুলনায় টিকার জোগান অপ্রতুল। সে জন্য বেশ কয়েকটি রাজ্যে ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সিদের মধ্যে টিকাকরণ বন্ধ রাখা হয়েছে। এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করতেই বুলন্দশহরে টিকার তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement