Advertisement
০৪ ডিসেম্বর ২০২২
Mid Day Meal

মিড-ডে মিলের ব্যয় বরাদ্দ বাড়াচ্ছে কেন্দ্র, দু’বছর পর সায় দিল অর্থমন্ত্রক, পড়ুয়া পিছু খরচ?

দেশের ১১ কোটি ৮০ লক্ষ স্কুলপড়ুয়া কেন্দ্রের মিড-ডে মিল প্রকল্পের আওতায় রয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস, সব্জি ও রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধিতে প্রকল্পের কাজে সমস্যা হচ্ছিল বলে অভিযোগ।

মিড-ডে মিলে বরাদ্দ বাড়ছে।

মিড-ডে মিলে বরাদ্দ বাড়ছে। —ফাইল ছবি

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০২ অক্টোবর ২০২২ ১০:২৫
Share: Save:

মিড-ডে মিলের বরাদ্দ বাড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। দু’বছর পর এই খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধিতে সায় দিয়েছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক। এর ফলে পড়ুয়া পিছু মিড-ডে মিলের রান্নার খরচ ৯.৬ শতাংশ বাড়বে।

Advertisement

মিড-ডে মিল খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধির সুপারিশ করেছিল একটি কমিটি। তাদের প্রস্তাবে সবুজ সঙ্কেত মেলায় অক্টোবর থেকেই এই বর্ধিত বরাদ্দ কার্যকর করা হবে বলে খবর।

দেশ জুড়ে মিড-ডে মিল খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধির দাবি তুলেছিলেন বিভিন্ন স্কুল কর্তৃপক্ষ এবং খাদ্য অধিকার কর্মীরা। দেশের প্রায় ১১ কোটি ৮০ লক্ষ স্কুলপড়ুয়া কেন্দ্রের এই প্রকল্পের আওতায় রয়েছে। যে হারে দিন দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস, সব্জি ও রান্নার গ্যাসের দাম বেড়ে চলেছে, তাতে বরাদ্দ অর্থে আর প্রকল্পের কাজ চালানো যাচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছিল। তার মাঝে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে কিছুটা স্বস্তি মিলল।

২০২০ সালে শেষ বার মিড-ডে মিলের বরাদ্দ বাড়িয়েছিল কেন্দ্র। প্রাথমিক স্কুলে প্রতি পড়ুয়ার (প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি) মিড-ডে মিল রান্নার জন্য বরাদ্দ ছিল ৪ টাকা ৯৭ পয়সা। উচ্চ প্রাথমিক স্কুলের পড়ুয়াদের (ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি) ক্ষেত্রে মাথাপিছু বরাদ্দ ছিল ৭ টাকা ৪৫ পয়সা।

Advertisement

কেন্দ্রের বর্ধিত বরাদ্দ কার্যকর হলে প্রাথমিকের ক্ষেত্রে মিড-ডে মিল রান্নার বরাদ্দ বেড়ে হবে ৫ টাকা ৪৫ পয়সা। উচ্চ প্রাথমিকে বরাদ্দ বেড়ে হবে ৮ টাকা ১৭ পয়সা। ডাল, সব্জি, নুন, মশলা, জ্বালানির খরচ অনুযায়ী মিড-ডে মিলের রান্নার খরচ ধার্য করা হয়।

এক আধিকারিক জানান, স্কুলগুলিতে এলপিজি সিলিন্ডারের জোগান যথেষ্ট কম। অনেক সময়েই ঘুরপথে চড়া দামে তা কিনতে হয়। তাই প্রত্যেক স্কুলের তালিকার সঙ্গে এলপিজি সিলিন্ডারের সংযুক্তকরণ প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তিনি। কেন্দ্রকে সেই প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, শিক্ষামন্ত্রক খাদ্যশস্যের দাম বৃদ্ধির বিষয়ে খাদ্যমন্ত্রকের সঙ্গে আলোচনা চালাবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.